শিরোনাম:
●   প্রচারনা ও গণসংযোগে এড. সালেহ আহমদ সেলিম ●   রাঙামাটিতে ২দিন ব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব ●   রাজশাহী ক্যাডেট কলেজে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫১ জন ●   মুক্তাগাছায় ট্রাক চাপায় ২ মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নিহত : আহত - ৭ ●   বিশ্বনাথে এইচএসসিতে পাশের হার ৬২% ●   জুয়েল চাকমা খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ●   হালুয়াঘাটে এক ব্যবসায়ী হত্যার অভিযোগ ●   কাউখালীতে ৬ শিক্ষার্থির ভুতে ধরা নিয়ে তুলকালাম কান্ড ●   এইচএসসিতে রাজশাহী বোর্ডে কমেছে পাসের হার ●   ইউপি চেয়ারম্যানের ব্যাপক অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে মেম্বারদের অনাস্থা প্রস্তাব ●   প্রচন্ড তাপদাহে অতিষ্ট বিশ্বনাথবাসী ●   বিশ্বনাথে ৭ গবাদী পশুর মৃত্যু: ডাক্তারকে দুষছেন কৃষক ●   বিশ্বনাথে ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সাংবাদিকের জিডি ●   ঝালকাঠি জেলায় সিডরে ক্ষতিগ্রস্ত ৫৬ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ সংস্কার হয়নি ●   বিএনপি ইস্যু পাওয়ার জন্য ক্রেজি হয়ে গেছে : গাজীপুরে কাদের ●   মৎস্য রপ্তানীতে বাংলাদেশের অবস্থান উল্লেখযোগ্য ●   গাজীপুরে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন ●   শিক্ষিকা যৌন হয়রানির অভিযোগে এক শিক্ষক বরখাস্ত : প্রক্টরকে অব্যাহতি ●   মেয়েকে ধর্ষণের পর হত্যা : পিতার মৃত্যুদণ্ড ●   দেশব্যাপী ত্রিশ লক্ষ শহীদদের স্মরণে গাছের চারা রোপণ কর্মসূচী ●   নওগাঁ জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নবনির্বাচিত সদস্যদের শপথ গ্রহন ●   শৈলকুপা পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ১০ লক্ষাধীক টাকার তহবিল তছরুপের অভিযোগ ●   গাইবান্ধায় বিদ্যুৎ বিভাগের অনিয়ম-দুর্নীতি বিরুদ্ধে সেচ পাম্প মালিকদের বিক্ষোভ ●   হরিনাকুন্ডুতে র‌্যাবের সাথে বন্দুক যুদ্ধে পঁচা ডাকাত নিহত ●   একটি সড়কের জন্য বিশ্বনাথে দুই গ্রামের আকুতি ●   জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উৎযাপন উপলক্ষে পানছড়িতে সংবাদ সম্মেলন ●   গরীবের ঘরে চাঁদের আলো ●   নারায়ণগঞ্জে জন্ম সনদ বিড়ম্বনা ●   রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র পুলিশকে অত্যাধুনিক পিকআপ ভ্যান প্রদান ●   গ্রাম আদালত সক্রিয় করণে সাপাহারে মত বিনিময়
রাঙামাটি, শনিবার, ২১ জুলাই ২০১৮, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫


CHT Media24.com অবসান হোক বৈষম্যের
সোমবার ● ৭ মে ২০১৮
প্রথম পাতা » কৃষি » চাটমোহরের চাষীরা বোরো ধান ঘরে তোলা নিয়ে শংকায়
প্রথম পাতা » কৃষি » চাটমোহরের চাষীরা বোরো ধান ঘরে তোলা নিয়ে শংকায়
৩৬ বার পঠিত
সোমবার ● ৭ মে ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

চাটমোহরের চাষীরা বোরো ধান ঘরে তোলা নিয়ে শংকায়

---চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি :: (২৪ বৈশাখ ১৪২৫ বাঙলা: বাংলাদেশ সময় রাত ৯.২০মি.) পাবনার চাটমোহরের চাষীরা বোরো ধান ঘরে তোলা নিয়ে শংকায় দিন কাটাচ্ছেন। বেশ কিছু দিন যাবত প্রায়ই ঝড় বৃষ্টি হওয়ায় তাদের এ শংকা। ফলন বিপর্যয়ের আশংকা থাকলেও ইতোমধ্যে অপেক্ষাকৃত নিচু জমির আধাপাকা ধান কাটা শুরু করেছেন কৃষক। সরেজমিন চাটমোহরের বোয়াইলমারী এলাকার খলিশাগাড়ি বিলে চোখে পরে এমন দৃশ্য। এসময় কৃষকেরা তাদের শংকার কথা জানান।
উপজেলার ধানকুনিয়া গ্রামের বোরো ধান চাষী রেজাউল করিম জানান, ৬ বিঘা নিচু জমিতে বোরো ধানের চাষ করেছেন তিনি। বৃষ্টিতে জমির মধ্যে প্রায় এক ফুট পানি জমে গেছে। বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকলে ধান ডুবে যেতে পারে এ আশংকায় আধা পাকা ধান কেটে ফেলছেন তিনি। একই গ্রামের লিটন মন্ডল জানান, চলতি মৌসুমে দশ বিঘা জমিতে বোরো ধানের আবাদ করেছেন তিনি। এবছর চারার দাম বেশি থাকায় প্রতি বিঘা জমিতে প্রায় চার হাজার টাকার চারা লেগেছে। জমি চাষ মই বাবদ খরচ হয়েছে এক হাজার টাকা। রোপনে শ্রমিক খরচ হয়েছে ১ হাজার ৭শ টাকা। টিএসপি পটাশ ইউরিয়া সার বাবদ খরচ হয়েছে প্রায় ১ হাজার ৪’শ টাকা। আগাছা পরিষ্কারে প্রায় ১ হাজার ৫শ টাকা খরচ হয়েছে। বালাই নাশক বাবদ প্রায় ৩শ টাকা এবং ধান কাটতে বিঘা প্রতি শ্রমিককে দিতে হচ্ছে প্রায় ৩ হাজার ১শ টাকা। বাড়িতে ধান নিয়ে যেতে ৬’শ টাকার মত পরিবহন খরচ হচ্ছে। সব মিলিয়ে বিঘা প্রতি খরচ পরছে প্রায় ১৩ হাজার ৬শ টাকার মত। মাড়াই বাবদ মন প্রতি ২ কেজি করে ধান দিতে হচ্ছে। প্রতি বিঘা জমিতে গড়ে ২০ মন হারে ধান হচ্ছে। জমিতে পানি প্রয়োগ বাবদ ইঞ্জিন মালিককে চার ভাগের এক ভাগ ধান দিয়ে আসতে হচ্ছে জমি থেকেই। এক বিঘা জমি আবাদ করে কৃষক ১৪ মনের মত ধান পাচ্ছেন যার বর্তমান বাজার মূল্য ১২ হাজার টাকার মতো। প্রতি বিঘা জমিতে দেড় থেকে দুই হাজার টাকার খড় পাওয়া যাচ্ছে। ফলে বোরো আবাদ করে কৃষকের কোন লাভ থাকছে না। উপরন্ত যারা প্রতি বিঘা জমি ৬ থেকে ৭ হাজার টাকায় লীজ নিয়ে বোরো আবাদ করেছেন তাদের বিঘা প্রতি লোকসান যাচ্ছে এ ৬ থেকে ৭ হাজার টাকা। এ ছাড়া মোতালেব হোসেনসহ আরো কয়েকজন কৃষকেরর সাথে কথা বলে জানা গেছে চারার দাম বেশি ও ধান ফোলার সময় শিলা বৃষ্টি হওয়ায় বোরো আবাদ করে এ বছর তারা লাভ করতে পারছেন না।
চাটমোহরের সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান জানান, চলতি মৌসুমে চাটমোহরে প্রায় ৯ হাজার ২শ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ হয়েছে। লক্ষ্য মাত্রা ছিল ৮ হাজার ৪শ হেক্টর। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৮শ হেক্টর জমিতে অতিরিক্ত বোরো আবাদ হয়েছে। ধানের ফলন ও ভাল হচ্ছে। প্রাকৃতিক দূযোগ না হলে কৃষক লাভবান হবে আশা করছি।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)