শিরোনাম:
●   চলনবিল অঞ্চলের বড়াল নদী পানির অভাবে এখন মরাগাঙ ●   গাইবান্ধায় ঝুঁকি মোকাবেলায় বরাদ্দ বৃদ্ধির দাবিতে মানববন্ধন ●   রুমায় ৩ জেএসএস নেতা আটক ●   কুয়াকাটায় ধারণ করা ইত্যাদি বিটিভিতে প্রচারিত হবে ২৯ মার্চ ●   পানছড়ি কলেজের অধ্যক্ষের নামে মিথ্যা অভিযোগের প্রতিবাদে মানববন্ধন ●   শহরের শিক্ষার সাথে দূর্গম এলাকার স্কুলের শিক্ষার মান বাড়াতে হবে ●   মায়ের হাতে শিশুকন্যা খুন ●   আক্কেলপুরে ঐতিহ্যবাহী ঘোড়ারহাটে ক্রেতা বিক্রেতা ও দর্শনাথীদের পদচারণায় এখন মুখরিত ●   আলীকদম উপ‌জেলা চেয়ারম্যান আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে কিছুই করেননি : রুম পাও ম্রো ●   রাঙামাটিতে মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে উন্নয়ন বোর্ডের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান ●   আলীকদমে স্বাধীনতা দিবস কাবাডি প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত ●   রাজশাহীতে লেভেল ক্রসিং সামলাচ্ছেন এক নারী ●   গোলাপগঞ্জে মিষ্টি রহস্য, বিষক্রিয়ায় ১জনের মৃত্যু, আশঙ্কাজনক-৩ ●   আলীকদম উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালামের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিন্দার ঝড় ●   চলনবিলের বিস্তির্ণ ফসলের মাঠ ইরি-বোরো ধানের সবুজের সমারোহ ●   ছুরিকাঘাতে বন্ধু খুন : ঘাতক বন্ধুর থানায় আত্মসমর্পণ ●   বান্দরবানে ম‌ডেল পাড়া কেন্দ্রের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন কর‌লেন মন্ত্রী বীর বাহাদুর ●   সংসদে চকোলেট খেয়ে ক্ষমাপ্রার্থী কানাডার প্রধানমন্ত্রী ●   ময়মনসিংহে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়ে ২৫ কলেজ শিক্ষার্থী হাসপাতালে ●   তরুণ, নারী এবং দরিদ্র জনগোষ্ঠির সুরক্ষায় তামাকপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রস্তাব ●   ঈশ্বরদীতে শত বর্ষ পূর্তি অনুষ্ঠান ●   বাঘাইছড়ির ৮ জন নির্বাচন কর্মকর্তা হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে রাজধানীতে মানববন্ধন ●   রাঙামাটিতে আ’লীগ নেতা সুরেশ কান্তি তংচঙ্গ্যার হত্যা মামলায় আটক-১ ●   ময়মনসিংহে দুই মাদক বিক্রেতা আটক ●   রাণীনগরে বিলে মাছ ধরা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে দ্বন্দ্ব ●   গাইবান্ধায় তামাকের কালো ছায়া গ্রাস করছে ফসলের ক্ষেত ●   রাঙামাটিতে সন্ত্রাসী হামলায় আহতদের দেখ‌তে গে‌লেন মন্ত্রী বীর বাহাদুর ●   বিপ্লবের মহানায়ক মাস্টারদা সূর্য সেন এর জন্মদিবসে শ্রদ্ধা নিবেদন ●   তদন্ত কমিটির সদস্যরা আজ বাঘাইছড়িতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ●   চাটমোহরে লিচু চাষীদের মুখে হাসি
রাঙামাটি, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫


CHT Media24.com অবসান হোক বৈষম্যের
বুধবার ● ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৯
প্রথম পাতা » অর্থ-বাণিজ্য » কাউখালীতে ক্ষুদ্র শিল্প কারখানা গড়ে উঠলে কমে আসবে বেকার সমস্যা
প্রথম পাতা » অর্থ-বাণিজ্য » কাউখালীতে ক্ষুদ্র শিল্প কারখানা গড়ে উঠলে কমে আসবে বেকার সমস্যা
৮৯ বার পঠিত
বুধবার ● ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৯
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

কাউখালীতে ক্ষুদ্র শিল্প কারখানা গড়ে উঠলে কমে আসবে বেকার সমস্যা

---মো. ওমর ফারুক,কাউখালী (রাঙামাটি) প্রতিনিধি :: রাঙামাটি পার্বত্য জেলার একটি জনবহুল উপজেলা কাউখালী। যেখানে রয়েছে কয়েক হাজার লোকের বসবাস। রয়েছে নানা জাতি ঘোষ্টির সমম্বয়। প্রাকৃতিক আবহে ঘেরা পাহাড় ঝর্নার ছোট বড় পাহাড় আর খাল বিলের এবং চাষাবাদের সামান্য জমি। যদিওবা এখানকার সাধারন মানুষ পাহাড় হতে এবং চাষাবাদ করে জিবীকা নির্বাহ করলেও এই উপজেলায় নেই কোন ক্ষুদ্র বা মাঝারী, বড় ধরনের শিল্প-কারখানা।
জানা যায়, কাউখালী উপজেলা চারটি ইউনিয়ন গঠিত। যার আয়তন ৩২৯.২৯ বর্গ কিলোমিটার। এই উপজেলার চার পাশে রয়েছে ৭টি উপজেলার সিমানা। বর্তমানে উপজেলার জনসংখ্যা প্রায় ৭০ হাজার। তার মধ্যে চাকমা,মারমা, মুসলিম, হিন্দু,বড়–য়া সামান্য খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের বসবাস।
রয়েছে কয়েক হাজার ছোট মাজারী বড় পাহাড় এবং চাষাবাদের জমি। এখানকার মানুষ কর্মসংস্থানের জন্য স্থানীয় পাহাড়ে ঝুমচাষ এবং পাহাড় হতে বাশঁ,গাছ, ছন, লাকড়ি সংগ্রহ করার পাশাপাশি নিজস্ব উদ্যোগে কিছু ফলজ বাগান, বনজ বাগান করে মূলত জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। তার পাশাপাশি স্থানীয় কিছু বেকার ছেলে মেয়ে কর্মের জন্য পাশর্^বর্তী চট্টগ্রাম জেলা সহ দেশের বিভিন্ন জেলায় গিয়ে কোন রকমে চাকুরী করে জীবিকা নির্বাহ করে চলছেন। বেচেঁ আছেন কোন রকমে। কিন্তু অর্থনৈতিকভাবে এখনো স্বচ্চল হতে পারেনী এখানকার বেশীরভাগ মানুষ। ১৯৭৯ ইং সাল থেকে এই উপজেলায় আগত সরকার কর্তৃক পুনর্বাসিত পরিবারবর্গ পাশাপাশি এখান হতে ভারতে চলে যাওয়া উপজাতিয় বেশ কিছু উদ্ভাস্থ পরিবার পরে ফিরে আসলে এখনো আর্থিকভাবে স্বচ্ছলতার মুখ এখনো দেখেনী। অর্থনৈতিক স্বচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে এখনো নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন এইসব পরিবার সহ এখানকার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষজন।
যদিওবা এখানে ইতপুর্বে গড়ে উঠার কথা ছিল ক্ষুদ্র চা-বাগান প্রকল্প। এই চা-বাগান প্রকল্প গড়ে উঠলে কাউখালী উপজেলায় অন্ততÍ কয়েক হাজার লোকের কর্ম সংস্থানের ব্যাবস্থা হতো পাশাপাশি অর্থিকভাবে স্বচ্ছল হতো এখানকার মানুষ। কিন্তু বাংলাদেশ চা-বোর্ড ইতিপুর্বে চা-বাগান প্রকল্প হাতে নিয়ে সফলকাম হওয়ার পুর্বেই একটি আন্চলিক রাজনৈতিক দলের বাধাঁর কারনে ভেস্তে গেছে সফল হওয়ার এই প্রকল্প। নয়তো আজ এখানকার হাজার হাজার লোক চা-বাগান প্রকল্প করে বেকারত্ব দুর করে আর্থিকভাবে স্বচ্চল হয়ে সুখে শান্তিতে বসবাস করতো বলে বিভিন্ন মহলের ধারনা।
অন্যদিকে এই উপজেলায় শিল্প-কারখানা না থাকার কারনে বেকারদের মধ্যে দেখা দিয়েছে হতাশা। দিন দিন যেন বেকারত্ব বেড়েই চলছে এই উপজেলায়।যদিওবা উপজেলার কিছুলোকজন সিএনজি চালক, রিক্সা ভ্যান, দিন মুজুরীর কাজ করেন তা ছাড়া পাহাড় হতে বাশঁ,ছন,লাকড়ী গোলপাতা সংগ্রহ করে চাষাবাদ করে, ছোটখাট ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ব্যাবসা করে জীবিকা নির্বাহ করলেও অন্য শিক্ষিত ছেলে মেয়েরা বেকার সময় পার করছেন। পানছড়ির জীবন চাকমা, পোয়াপাড়ার নয়নমনি , ঘাগড়ার সুমন দাশ, বেতবুনিয়ার অংচাচিং মারমা, সদরের প্রিয়া মারমা ও কোরবান আলী সিএইচটি মিডিয়াকে বলেন, কি হবে পড়া লেখা শিখে আজ আমরা কর্মের অভাবে বেকার। চাকুরীর জন্য চেষ্টা করেছি কিন্তু চাকুরী হয়নি। এক পদের জন্য কয়েক হাজার প্রার্থী আবেদন করেন। চাকুরী হয় অল্প কয়েকজনের বাকিরা তো তখন বেকার তাদের তো কিছুই করার নেই। কিন্তু সরকার মহোদয় যদি আমাদের কাউখালী উপজেলায় বিভিন্ন ক্ষুদ্র শিল্প-কারখানা অথবা চা-বাগান বা রাবার বাগান, গার্মেন্স ফ্যাক্টরী করতো তা হলে অন্তত আমাদের বেকারদের যে সমস্য তা দুর হতো। সেই সাথে এই উপজেলার হাজার হাজার বেকার তার বেকাঁরত্ব গোছাতে পারতো। আর্থিকভাবে হতো প্রতিটি পরিবার স্বচ্ছল এবং স্বাবল¤ী^।
অপরদিকে বেতবুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো.শামসুদ্দোহা চৌধুরী সিএইচটি মিডিয়াকে বলেন, কাউখালী উপজেলা রাঙামাটি জেলার একটি গুরুত্বপুর্ন উপজেলা। এই উপজেলায় শিক্ষিত মোটামুটি ভাল, কিন্তু উপজেলায় কোন ক্ষুদ্র,মাঝারী, বড় কোন শিল্প- কারখানা না থাকায় বেকারের হাড় বেড়েই চলছে। যদি কোন চা-বাগান, রাবার বাগান বা ছোট ছোট শিল্প-কারখানা বা গার্মেন্স ফ্যাক্টরী হতো তা হলে এখানের মানুষ বেকার থাকতো না।
এ প্রসংগে কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার শতরুপা তালুকদার সিএইচটি মিডিয়া কে বলেন, কাউখালী উপজেলাটি রাঙামাটি জেলার গুরুত্বপুর্ন উপজেলা। এই উপজেলায় ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র শিল্প-কারখানা বা চা-বাগান/ রাবার বাগান হলে অথবা গার্মেন্স ফ্যাক্টরী হলে এই উপজেলায় বেকারত্ব বাংলাদেশের অন্য উপজেলার তুলনায় কমে শুন্যের কৌঠায় নেমে আসবে বলে আমি আশাবাদি।¡
তাই এ ব্যাপারে কাউখালী উপজেলার সচেতন মহল বর্তমান সরকারের উর্দ্ধোতন প্রশাসনের কাছে জোর আবেদন জানান যে, খুব দ্রুতভাবে অত্র উপজেলায় ছোট মাঝারী বড় শিল্প-কারখানা এবং গার্মেন্স ফ্যাক্টরী স্থাপন অথবা চা-বাগান,রাবার বাগান বা ফরেষ্ট ডিপার্টমেন্টর মাধ্যমে অংশিদারিত্ব মুলুক বিভিন্ন ফলজ, বনজ বাগান করে অত্র এলাকার লোকদের বেকারত্ব দুর করে আর্থিকভাবে স্বচ্ছল করার জন্য দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।



অর্থ-বাণিজ্য এর আরও খবর

আখচাষী ও কর্মচারীদের বকেয়া বেতনের ভারে স্থবির রংপুর চিনিকল আখচাষী ও কর্মচারীদের বকেয়া বেতনের ভারে স্থবির রংপুর চিনিকল
ময়মনসিংহে আঞ্চলিক এসএমই পণ্য মেলার উদ্বোধন ময়মনসিংহে আঞ্চলিক এসএমই পণ্য মেলার উদ্বোধন
ঝালকাঠিতে সপ্তাহব্যাপী এসএমই পণ্য মেলা শুরু ঝালকাঠিতে সপ্তাহব্যাপী এসএমই পণ্য মেলা শুরু
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে পানের দাম আকাশচুম্বি দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে পানের দাম আকাশচুম্বি
মংলা বন্দরে বিদেশি জাহাজ চ্যানেলে প্রবেশ করতে পারছে না নাব্য সংকটে মংলা বন্দরে বিদেশি জাহাজ চ্যানেলে প্রবেশ করতে পারছে না নাব্য সংকটে
চলনবিলে ধান ও চালের বাজারে অসংগতির ফলে ব্যবসায় স্থবিরতা : ৭০ শতাংশ মিল চাতাল বন্ধ চলনবিলে ধান ও চালের বাজারে অসংগতির ফলে ব্যবসায় স্থবিরতা : ৭০ শতাংশ মিল চাতাল বন্ধ
বর্তমান সরকারের দুই মেয়াদে ব্যাংকিখাতে ১০ বছরে ব্যাংক থেকে লুট হয়েছে সাড়ে ২২ হাজার কোটি টাকা বর্তমান সরকারের দুই মেয়াদে ব্যাংকিখাতে ১০ বছরে ব্যাংক থেকে লুট হয়েছে সাড়ে ২২ হাজার কোটি টাকা
ঝিনাইদহে চিনিকলের মাড়াই মৌসুমের উদ্ধোধন : অবিক্রিত আড়াই হাজার মেট্রিক টন চিনি পড়ে রয়েছে ঝিনাইদহে চিনিকলের মাড়াই মৌসুমের উদ্ধোধন : অবিক্রিত আড়াই হাজার মেট্রিক টন চিনি পড়ে রয়েছে
বান্দরবানে চারদিন ব্যাপী আয়কর মেলা শুরু বান্দরবানে চারদিন ব্যাপী আয়কর মেলা শুরু

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)