শিরোনাম:
●   মেয়েকে ধর্ষণের ভিডিও বাবাকে দেখিয়ে ধর্ষকের হুমকী : ধর্ষিতার আত্মহত্যার চেষ্টা ●   দেশে ১৫ দিনে ৩৯ ধর্ষণ ●   সুন্দরবনে ৯ ফুট লম্বা অজগর অবমুক্ত ●   দরিদ্র মায়ের আশা পূরণ হলো হোটেল বয় গৌর চন্দ্র স্কুলে ●   প্রলোভনে তামাক চাষ, আর্থিক লোকসানের মুখে চাষীরা ●   রাজশাহীতে ইয়াবাসহ কারারক্ষী গ্রেপ্তার ●   দীঘিনালায় সম্প্রীতি মেলার নামে অশ্লীল জুয়া-হাউজীর আসর ●   বাংলাদেশের ডা. নাসের খান অ্যামেরিকায় ‘ফ্রম দি হার্ট -২০১৯’ পুরস্কারে ভূষিত ●   চাকুরী দেবার কথা বলে ২ কোটি টাকার প্রতারণায় সানোয়ার আটক ●   ঈশ্বরগঞ্জে হত্যা মামলায় ১৬ বছর পর দুইজনের ফাঁসির রায় ●   আত্রাইয়ে আলোক ফাঁদ পদ্ধতি কমছে কীটনাশক ব্যবহার ●   বাগেরহাটে সরকারী ১২ পুকুর খননে চলছে পুকুর চুরি ●   রাস্তা পাকাকরণে ব্যবহার হচ্ছে নিম্নমানের ইট ●   রাজশাহীতে সম্প্রীতির হাওয়া ●   রোয়াংছড়ি নোয়াপতং খায়াংম্রং পাড়ায় অ‌গ্নিকা‌ন্ড ●   বিধবা-বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী ভাতা চেয়ারম্যান-মেম্বারের পেটে ●   ৭ বছরের শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগে রাজুকে চুল কেটে জুতার মালা গলায় দিয়ে ঘুরিয়েছে গ্রামবাসী ●   রাঙামাটিতে জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালি ●   গাইবান্ধায় ৩৯৭ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক-৩ ●   একধিক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক সালাম গ্রেফতার ●   ময়মনসিংহে সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকার প্রার্থী টিটুকে ‘বিনা ভোটে’ জয়ী ঘোষণা ●   দেশব্যাপী ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালন ●   রুমায় বর্নাঢ্য আয়োজনে মৈত্রী পানি বর্ষণ সমাপ্ত ●   বিশ্বনাথে ইউএনও’র আচরণে ক্ষুব্ধ সাংবাদিকরা ●   ছিনতাই হওয়া মাইক্রোবাস জয়পুরহাটে উদ্ধার ●   বান্দরবানে প্রান্তিক লেকের পানিতে ডুবে বন্য হাতির মৃত্যু ●   মহালছড়িতে সাংগ্রাই উপলক্ষে মৈত্রী পানি খেলা ●   ঐতিহ্যবাহী গোপাল চাঁদ বারুণী মেলায় লাখো ভক্তের পদচারনায় মুখরিত ●   ‘স্বাস্থ্য সেবা অধিকার, শেখ হাসিনার অঙ্গীকার’ শ্লোগানে ঝিনাইদহে স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহের উদ্বোধন ●   চাটমোহরে স্কুলের দেয়ালে মৌচাক
রাঙামাটি, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬


CHT Media24.com অবসান হোক বৈষম্যের
রবিবার ● ১৪ এপ্রিল ২০১৯
প্রথম পাতা » খুলনা বিভাগ » বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাঙালীর ঐতিহ্য বাংলা বর্ষবরণ আনন্দে মাতোয়ারা দেশবাসী
প্রথম পাতা » খুলনা বিভাগ » বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাঙালীর ঐতিহ্য বাংলা বর্ষবরণ আনন্দে মাতোয়ারা দেশবাসী
৫৭ বার পঠিত
রবিবার ● ১৪ এপ্রিল ২০১৯
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাঙালীর ঐতিহ্য বাংলা বর্ষবরণ আনন্দে মাতোয়ারা দেশবাসী

 ---
বান্দরবানে পাহাড়ি-বাঙ্গালিদের প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ উৎযাপন

বান্দরবান প্রতিনিধি :: পার্বত্য অঞ্চলের পহেলা বৈশাখ মানেই পাহাড়ি বাঙ্গালির প্রনের উৎসব, বৈশাখ মানেই পাহাড়ি-বাঙ্গালির সার্বজনীন উৎসব। সুখ-শান্তি-সমৃদ্ধি ও কল্যানের আশা নিয়ে ধুমদামের সঙ্গে উদযাপন করছে বাংলা নববর্ষ। বান্দরবানের সব বয়সি বিভিন্ন ওশ্রনীপেশার মানুষ উৎসবের আনন্দে মেতে উঠে এ দিন টিতে। পোষাক পরিচ্ছদ, খাওয়া-দাওয়া, গান-বাজনা সব কিছুতেই প্রধান্য পায় বঙ্গালিয়ানা। যেন এ দিনটি একটি নতুন বছরের সুচনা।
আজ রবিবার ১৪ এপ্রিল সকাল ৮ টায় বান্দরবানের রাজার মাঠ প্রাঙ্গণে বেলুন উড়িয়ে বৈশাখী শোভাযাত্রা ও অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করেন পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বান্দরবানের বিগ্রেডিয়ার জেনারেল খন্দকার মো. শহিদুল এমরান, এএফ ডব্লিউসি, পিএসসি, জেলা প্রশাসক দাউদুল ইসলাম, পলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার, আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ, জেলা পরিষদ সদস্য লক্ষিপদ দাশ, নব নির্বাচিত সদর উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম জাহাঙ্গীসহ আরো অনেকে।
স্থানিয় রাজার মাঠথেকে বৈশাখী শোভাযাত্রা শুরুর আগে থেকে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খন্ড খন্ড নিজস্ব শোভাযাত্রা নিয়ে রাজার মাঠে বৈশাখী শোভাযাত্রার সাথে মিলিত হয়।
পার্বত্য জেলা পরিষদের নেস্ত বিভাগ ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনিষ্টিটিউট ও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শোভাযাত্রা ও অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ও পুলিশ ব্যন্ড দলের পক্ষ থেকে ঢাক ঢোল পিটিয়ে, বিভিন্ন রং-বেরংয়ের পোষাক পরিদান করে পাহাড়ের ১১টি সম্প্রদায়ের নারী পুরুষরা এ পহেলা বৈশাখের শোভাযাত্রায় আংশ গ্রহন করেন। শোভাযাত্রা শেষে চলে পান্থা ভাতের অনুষ্ঠান। পান্তা ভাতের অনুষ্ঠান শেষে অতিথিরা বান্দরবান রাজার মাঠে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

নানা আয়োজনে ময়মনসিংহে উদযাপিত হচ্ছে বাংলা নববর্ষ

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :: নানা আয়োজনে ময়মনসিংহে উদযাপিত হচ্ছে বাংলা নববর্ষ ১৪২৬। আবহমান বাংলার গ্রামীণ ঐতিহ্যকে ধারণ করে আনন্দ উৎসবে মেতে উঠেছে সবাই। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির আহব্বান নিয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রাসহ নানা বর্ণিল আয়োজনে বাঙ্গালির চিরন্তন ঐতিহ্য বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ পালন করতে গিয়ে সামাজিক-সাংস্কৃতিক-স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা বাঙালিয়ানা সাজ ও হারিয়ে যাওয়া গ্রামীণ লোকজ ঐতিহ্য ধারণ করে এতে অংশ নেয়।

আজ রবিবার ১৪ এপ্রিল সকালে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির আহব্বান ‘মস্তক তুলিতে দাও অনন্ত আকাশে ’ এ আহ্বানে নগরীর স্টেশন রোড এলাকা থেকে শোভাযাত্রার আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন। পরে শোভাযাত্রাটি নগরীর বিভিন্ন প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জয়নুল উদ্যান পার্কে গিয়ে শেষ হয়।

শোভাযাত্রায় উৎসবে মাতোয়ারা হাজার হাজার মানুষ রঙ বেরঙের ফানুস আর আলপনায় সজ্জিত হয়ে কৃষক, কামার, কুমার, তাতি, জেলে, মুচি, চরকি, নাগরদোলা, মাটির পুতুল, তৈজসপত্রসহ রঙিন মৃৎশিল্প, হাতি, কুঁড়েঘর, ঘোড়া, বাঘ ও পাখির প্রতিকৃতি, গ্রামীণ বধূ, নৌকা, রাজা-রানী, উজির-নাজির, টেপা পুতুলের মুখসহ নানা কারুকাজে সজ্জিত হয়ে হয়ে বিভিন্ন বয়সী মানুষজন এ বিশাল মঙ্গল শোভাযাত্রায় স্বতস্ফূর্তভাবে অংশ নেন।

এ আনন্দ মঙ্গল শোভাযাত্রায় সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য মনিরা সুলতানা মনি , ময়মনসিংহ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, পুলিশ সুপার আবিদ হাসান, সাবেক পৌর মেয়র ও সাবেক সিটি কর্পোরেশন প্রশাসক মোঃ ইকরামুল হক টিটু, জেলা আ’লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা, জেলা আ’ লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট আহবায়ক আমীর আহমেদ চৌধূরী রতনসহ বিভাগীয় পর্যায়ের কর্মকর্তা, জেলা, উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ছাড়াও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার বিপুল সংখ্যক মানুষজন অংশগ্রহন করেন।


ঝিনাইদহে নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে ১লা বৈশাখ পালন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি :: নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে বাংলা নতুন বছরকে বরণ করে নিচ্ছে ঝিনাইদহবাসী। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে রোববার সকালে শহরের ওয়াজির আলী স্কুল এন্ড কলেজ মাঠ থেকে মঙ্গলশোভাযাত্রা বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে ঝিনাইদহ-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য খালেদা খানম, জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ, পুলিশ সুপার মো: হাসানুজ্জামান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র আলহাজ সাইদুল করিম মিন্টুসহ নানা শ্রেণী পেশার মানুষ অংশ নেয়। র‌্যালিতে প্রদর্শণ করা হয় পেচা, বাঘের মুখোশ, গরুর গাড়ি, পালকিসহ গ্রাম বাংলার ঐহিত্য। এছাড়াও দিনভর পান্তা পরিবেশন, লাঠি খেলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে জেলার বিভিন্ন স্থানে বাংলা বর্ষবরণ পালিত হচ্ছে।

ঝিনাইদহে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে গ্রামীণ ঐতিহ্যেবাহী লাঠি খেলা প্রদর্শন
ঝিনাইদহ :: বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে ঝিনাইদহে হয়ে গেলো গ্রামীণ ঐতিহ্য লাঠি খেলা। শহরের পায়রা চত্বরে সকালে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বাংলাদেশ লাঠিয়াল বাহিনী। বর্ণিল সাজে লাঠি হাতে লাঠিয়ালরা অংশ নেন এ খেলায়। ঢাকঢোল আর বাঁশির তালে আনন্দে-উল¬াসে মেতে ওঠেন সবাই। শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে নানা বয়সের মানুষ রঙ-বেরঙের পোশাক পরে মাঠে আসেন লাঠি খেলতে। বাদ্যের তালে চলে লাঠি খেলা। প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাত থেকে নিজেরে রক্ষা করা আর অপরকে ঘায়েল করার চেষ্টায় মেতে থাকেন লাঠিয়ালরা। প্রদর্শণ করা হয় লাঠি নিয়ে নানা কলা-কৌশল। লাঠিখেলার আয়োজক বাংলাদেশ লাঠিয়াল বাহিনী ঝিনাইদহ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও ঝিনাইদহ পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান খোকা বলেন, ‘পুরানো ঐতিহ্যকে ফিরিয়ে আনতেই আমাদের এ আয়োজন।’ লাঠিখেলায় অংশ নেওয়া শৈলকুপা উপজেলার হাটফাজিলপুর গ্রামের রইচ উদ্দিন বলেন, আমরা নিজেদের আনন্দ ও অন্যদের আনন্দ দেওয়ার জন্য বিভিন্ন স্থানে লাঠিখেলা করে থাকি। কিন্তু আমরা অবহেলিত। গ্রাম বাংলার এই ঐতিহ্য ধরে রাখতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

ঝিনাইদ অজপাড়া গাঁয়ে ব্যতিক্রমধর্মী ১লা বৈশাখ বরণ

ঝিনাইদহ :: গৃহস্থ বাড়ির বিরাট একটি উঠোন বানানো হয়েছে গ্রামের হাই স্কুলের মাঠকে। সেখানে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে গ্রাম থেকে হারিয়ে যাওয়া ঐহিত্য। আছে সাফদার ডাক্তারের চেম্বার। সেখানে রোগী দেখছেন পল্লী চিকিৎসক গোলাম রহমান ওরফে চেনা ডাক্তার। আছে আসমানীদের জরাজীর্ন বাড়ি। জসিম উদ্দীনের কবর কবিতার চিত্র ফুটিয়ে সেখানে ক্রন্দনরত রয়েছে নাতি পশ্চিমপাড়ার দাউদ হোসেন। আদর্শ কৃষকের সংসার। সেই সংসারে কুলায় ধান ও চাল ঝাড়ছে বধুরা। গ্রাম্য সংসারের সব কিছুই সেখানে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। পালকি চড়ে নতুন বউ যাচ্ছে স্বামীর ঘরে। ঢেঁকিতে ধান ভানছে গ্রামের বধুরা। গ্রাম বাংলার চিরচরিত নিয়মে যাতা ঘুরিয়ে ডাল বানানো হচ্ছে। জ্যোতিন্দ্র মোহন বাগচির কাজলা দিদির কবিতার মতোই স্মৃতি ফুটয়ে তোলা হয়েছে পুকুর, বাতাবি লেবু ও বাঁশ বাগান বানিয়ে। আছে পান্তা ইলিশ ও বিষধর সাপের খেলা। সে এক অসাধারণ দৃশ্য। সকাল থেকে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বংকিরা সরকারী প্রাইমারি ও হাই স্কুলের স্কুলের শিশু মেয়েদের বৈশাখী পোশাক পরে ঘুরে বেড়ানোর দৃশ্য বৈশাখী বরণের এই অনুষ্ঠানকে আরো প্রানবন্ত করে তোলে। বেলা ১০টার দিকে বংকিরা, ধোপাবিলা, হাজরা, আসাননগর, গোবিন্দুপর, জীবনা ও মোহাম্মদপুর গ্রামের মানুষদের নিয়ে বর্নাঢ্য র‌্যালি বের হয়। এলাকার কৃতি সন্তান ও বিশিষ্ট সাংবাদিক আসিফ ইকবাল কাজল, সাধুহাটী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী নাজির উদ্দীন, বংকিরা হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক খোশনুর রহমান, গোবিন্দপুর সরকারী প্রাইমারির প্রধান শিক্ষক আব্দুর রশিদ, হাজরা সরকারী প্রাইমারির প্রধান শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান, মিঠু জোয়ারদার ও ডালিম হোসেনসহ শত শত মানুষ র‌্যালিতে যোগদান করেন। আর ব্যতিক্রমধর্মী বর্ষ বরণের এই বিশাল কর্মযজ্ঞ সম্পন্ন করেন বংকিরা পুলিশ ক্যাম্পের আইসি কাজী বায়োজিদ আহম্মেদ। মুলত তার পরিকল্পনায় গ্রাম বাংলার এই চিত্র ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।
পহেলা বৈশাখ সকল অশুভ শক্তিকে পেছনে ফেলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা যোগায়”- চুয়েট ভিসি
রাউজার (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি :: চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এ বর্ণিল ও বর্ণাঢ্য আয়োজনে ‘প্রাণের বন্ধনে বৈশাখ’ শিরোনামে দিনব্যাপী বাঙালির প্রাণের উৎসব বাংলা নববর্ষ-১৪২৬ উদযাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে রবিবার পহেলা বৈশাখের প্রথম প্রহরে সকাল আটটায় চুয়েট গোল চত্বরে বৈশাখী শোভাযাত্রার মাধ্যমে উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। শোভাযাত্রায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ বিপুল শিশুকিশোর অংশগ্রহণ করেন। শোভাযাত্রাটি চুয়েট আবাসিক উত্তর গোল চত্বর থেকে শুরু হয়ে পুরো ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে আবাসিকের খেলার মাঠে গিয়ে শেষ হয়। এ সময় চুয়েট ভাইস চ্যান্সেলর উপস্থিত সকলের সাথে কুশল বিনিময়ের পাশাপাশি বাংলা নববর্ষ-১৪২৬ এর শুভেচ্ছা জানান।
এ উপলক্ষে চুয়েট আবাসিক বৈশাখী মঞ্চে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। পহেলা বৈশাখ-১৪২৬ উদযপান পরিষদের আহবায়ক ও ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মশিউল হকের সভাপতিত্বে এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী। এ সময় তিনি পহেলা বৈশাখের ইতিহাস ও ঐতিহ্য নিয়ে এক অডিও রেকর্ড উপস্থাপন করেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন পুরকৌশল বিভাগের সেকশন অফিসার জনাব মোহাম্মদ শওকত আলী।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, পহেলা বৈশাখ বাঙালির প্রাণের উৎসব। বৈশাখের সঙ্গে বাঙালির জীবনাচারের একটি ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলের স্বত:স্ফূর্ত অংশগ্রহণ এই উৎসবকে সর্বজনীনতা দিয়েছে। বিশ্ব ঐতিহ্য সংস্থা ইউনেস্কোর স্বীকৃতি যেন বাংলা নববর্ষের মাহাত্ম্যকে আরো অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে। পহেলা বৈশাখ আমাদের সকল অশুভ শক্তিকে পেছনে ফেলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা যোগায়। এরপরই শুরু হয় বৈশাখের পান্তা-ইলিশ উৎসব পর্ব। পরে শিশু-কিশোরদের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, খেলাধুলা, প্লে-সাইকেলিং, লটারীর ড্র, বৈশাখী আলোচনা ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা প্রভৃতি অনুষ্ঠিত হয়।

বৈশাখী উৎসবের নানান আয়োজনে বিশ্বনাথে বর্ষবরণ

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: জাতি-ধর্ম-বর্ণের ভেদাভেদ ও ধনী-গরীবের বৈষম্য ভুলে নিজেদের আপন ঐতিহ্য, সাংস্কৃতিক নিজস্বতা ও গৌরবময় জাতিসত্তার পরিচয়ে আলোকিত হয়েই বাংলা ১৪২৬ বর্ষকে স্বাগত জানিয়েছেন সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলাবাসী। বৈশাখী উৎসবের নানান আয়োজনে নতুন বছরকে স্বাগত জানাতেই দিনব্যাপী চলে বর্ষবরণের নানান আয়োজন। উপজেলা প্রশাসন ও বিশ্বনাথ নববর্ষ উদযাপন পরিষদের যৌথ উদ্যোগে উদ্যোগে এবং বিশ্বনাথ থিয়েটারের পরিচালনায় চলে বর্ষবরণের দিনব্যাপী বর্নাঢ্য আয়োজন।
সকাল ৯টার জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে বৈশাখী উৎসবের সূচনা হয়। এরপর বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত বৈশাখী উৎসবের শুভ উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অমিতাভ পরাগ তালুকদার। উদ্বোধন ঘোষণার পর বৈশাখের সঙ্গীত পরিবেশন করে বরণ করে নেওয়া হয় বাংলা ১৪২৬ বর্ষকে। সেই সাথে বিদায় জানানো হয় বাংলা ১৪২৫ বর্ষকে।
সকাল ১০টায় উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের অংশগ্রহণে ও স্থানীয় সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রাটি উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। নানান সাজে-সজ্জিত হয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রায় অংশগ্রহনকারীদের হাতে ছিলে বর্ণিল রং এর প্লে-কার্ড। মঙ্গল শোভাযাত্রা শেষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী। এরপর তিনি বৈশাখী ক্রোড়পত্রের মোড়ক উন্মোচন করেন।
বিশ্বনাথ নববর্ষ উদযাপন পরিষদের আহবায়ক অধ্যক্ষ নেহারুন নেছার সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব নবীন সোহেলের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান এস এম নুনু মিয়া, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অমিতাভ পরাগ তালুকদার, বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শামসুদ্দোহা পিপিএম, দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমির আলী, বিশ্বনাথ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সম্পাদক মকদ্দছ আলী, উপজেলা বিআরডিবি চেয়ারম্যান মহব্বত আলী জাহান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ডাক্তার বিভাংশু গুন বিভু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্বনাথ থিয়েটারের সভাপতি আনহার আলী।
আলোচনা সভা শেষে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ‘মোরগের লড়াই, হাড়ীভাঙ্গা, কাবাডি’সহ নানান ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগীতা শেষে বিজয়ীদের মধ্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অমিতাভ পরাগ তালুকদারের সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। নববর্ষ উদযাপন পরিষদের সদস্য সচিব নবীন সোহেলের পরিচালনায় এসময় বক্তব্য রাখেন বিশ্বনাথ নববর্ষ উদযাপন পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক কবি সাইদুর রহমান সাঈদ, হাজী মফিজ আলী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের শিক্ষক আবদুল হান্নান ইউজেটিক্স, বিশ্বনাথ বন্ধুসভার সহ সভাপতি কামাল মুন্না।
দুপুরে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের সম্মানে মধ্যাহ্ন ভোজের আয়োজন করা হয়। এরপর বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলে বাউল গানসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সুষ্ঠ, সুন্দর ও শান্তিপূর্ণভাবে বিশ্বনাথে বৈশাখী উৎসব পালিত হওয়ায় উপজেলা প্রশাসন, বিশ্বনাথ নববর্ষ উদযাপন পরিষদ ও বিশ্বনাথ থিয়েটারের পক্ষ থেকে সর্বস্তরের জনসাধারণকে আন্তরিক অভিনন্দন ও বৈশাখী শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।
বৈশাখী উৎসবের নানান আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফাতেমা-তুজ-জোহরা, বিশ্বনাথ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ দুলাল আকন্দ, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মহিউদ্দিন আহমদ, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সমীর রঞ্জন দেব, কৃষি কর্মকর্তা রমজান আলী, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মাহবুব আলম সরকার, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি বিশ্বনাথ জোনাল অফিসের এজিএম কম নাজমুল হাসান, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ ফয়েজ আহমদ সেবুল, প্রচার সম্পাদক নিখিল পাল, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আবদুল মতিন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক শামীম আহমদ, সহ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য মিজানুর রহমান মিজান, বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক প্রনঞ্জয় বৈদ্য অপু, সদস্য অসিত রঞ্জন দেব, নূর উদ্দিন, সাংবাদিক রোহেল উদ্দিন, বিশ্বনাথ সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সাইফুল ইসলাম বেগ, সদস্য পাবেল সামাদ, যুবলীগ নেতা জাবেদ মিয়া, রাসেল আহমদ, এমদাদ হোসেন নাঈম, সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সিজিল মিয়া, নিজাম উদ্দিন, মহানগর ছাত্রলীগ নেতা সরফ উদ্দিন সৌরভ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের আহমদ জয়, বিশ্বনাথ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মিয়াদ আহমদ, বিশ্বনাথ থিয়েটারের যুগ্ম সম্পাদক মুহিন আহমদ, সদস্য জুয়েল আহমদ, নুরুল আমিন, পিউল দেব সৈকত, আবদুল হাকিম’সহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার ব্যক্তিবর্গ।

বাঙালীর ঐতিহ্য বাংলা বর্ষবরণ আনন্দে মাতোয়ারা বাগেরহাটবাসী

বাগেরহাট প্রতিনিধি :: সকল বিষাদের গ্লানি ভুলে, নব কেতনের ধ্বজা তুলে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সমৃদ্ধ দেশ গড়ার শপথ নিয়ে সর্বস্তরের জনগণের অংশগ্রহণে বর্ণিল আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপন করছে বাগেরহাটবাসী । এ উপলক্ষে রোববার সকালে মঙ্গল শোভাযাত্রা করেছে বাগেরহাট জেলা প্রশাসন।

শোভাযাত্রাটি জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকালে বাগেরহাট শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়াম থেকে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়। এতে জেলা প্রশাসন, প্রেসক্লাব, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা অংশ নেয়।

শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা পরিষদ অডিটোরিয়াম চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে ফিতা কেটে আটদিনের বৈশাখী মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) তপন কুমার বিশ্বাস।

এসময় জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) পঙ্কজ চন্দ্র রায়, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জহিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ আফজাল, সাহাদাত হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট ফরিদ উদ্দিন আহমেদসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

নববর্ষ উপলক্ষে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কারাগার, হাসপাতাল ও শিশু পরিবারে ঐতিহ্যবাহী বাঙালি খাবার পরিবেশন, বাগেরহাট বহুমুখী কলেজিয়েট স্কুলে ঐতিহ্যবাহী দেশীয় খেলাধুলা, স্বাধীনতা উদ্যানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন। এছাড়া প্রতিবারের মতো জেলা প্রশাসকের বাসভবনে সর্বসাধারণের জন্য পান্থা-ইলিশ উৎসবের আয়োজন রয়েছে।নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে বাগেরহাটে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। শহর জুড়ে রয়েছে র‌্যাব-পুলিশের কয়েক স্তুরের নিরাপত্তা, গোয়েন্দা নজরদারি।
বাংলা বর্ষবরণ-২০২৬ উপলক্ষ্যে রবার বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল বর্ণাঢ্য র‌্যালি, পান্তা ভাত , মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, লোকজ মেলা , আলোচনা সভা ,হা-ডু-ডু খেলা অ
উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. শাহ-ই আলম বাচ্চু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কামরুজ্জামান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লিয়াকত আলী খান, ওসি (তদন্ত) ঠাকুরদাস মন্ডলের নেতত্বে বর্ণাঢ্য র‌্যালি সকালে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি পৌর সদরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। র‌্যালিতে পৌর সদরের মোরেলগঞ্জ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, এসিলাহা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, আজিজিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বারইখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মোরেলগঞ্জ সরকারি মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আবু হুরাইরা দাখিল মাদ্রাসা, কাঠালতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দি লাইসিয়াম একাডেমি সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান র‌্যালিতে অংশগ্রহন করে। পরে উপজেলা অফিসার্স ক্লাব মিলনায়তনে পান্তা ভাত পরিবেশন করা হয়। একইদিনে উপজেলার সন্ন্যাসী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, এইভিএস হাজী নূরউদ্দিন দাখিল মাদ্রাসা.মোরেলগঞ্জ লতিফিয়া ফাযিল মাদ্রাসায় বাংলা বর্ষবরণ উপলক্ষে পান্তা ভাত-ইলিশ পরিবেশন,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
এছাড়াও উপজেলা বিএসএস দাখিল মাদ্রাসা, হাজী ইব্রাহিম স্মৃতি দাখিল মাদ্রাসা, মনোয়ারা দাখিল মাদ্রাসা, ধানসাগর পল্লীমঙ্গল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, উত্তর চিপা বারইখালী বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্ব বারইখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মোরেলগঞ্জ আদর্শ সরকারি প্রাখমিক বিদ্যালয় সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বাংলা বর্ষবরণ উপলক্ষে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। বাঙালী সংস্কৃতির বিভিন্ন ঐতিহ্য ও লোকজ সংস্কৃতি প্রদর্শণ শেষে অফিসার্স ক্লাবের উদ্যোগে অতিথিদের আপ্যয়ন করা হয় গ্রামীণ ঐতিহ্যের চিরায়ত পান্তা -ইলিশ আর বিভিন্ন রকমের ভর্তা ভাজি দিয়ে। বাগেরহাট জেলার ৯ উপজেলা বিভিন্ন স্থানে বৈশাখী মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
নববর্ষ উপলক্ষে আজ সকাল থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত রাখা হয়েছে পৌরপার্ক, সুন্দরবন রিসোর্ট সেন্টার, চন্দ্রমহল, বাগেরহাট যাদুঘর ও ষাটগম্বুজ মসজিদসহ পর্যটন স্পটগুলো।

লামায় বর্ষবরন অনুষ্ঠান পালিত

লামা(বান্দরবান)প্রতিনিধি ::আজ পয়লা বৈশাখ ১৪২৬ বাংলা নববর্ষ। নানা আয়োজনে চলছে বর্ষবরণ অনুষ্টান। দিবসটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচী হাতে নিয়েছে লামা উপজেলা প্রশাসন। বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ এর প্রথম দিন রবিবার সকালে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি উপজেলা প্রশাসন চত্বর থেকে শুরু করে পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি র‌্যালিতে নেতৃত্ব দেন।
এসময় লামা পৌরসভার মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম, লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অপ্পেলা রাজু নাহা, নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. জাহেদ উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শেখ মাহাবুবুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান বাথোয়াইচিং মারমা, মিন্টু কুমার সেন, ছাচিং প্রু মারমা ও উপজেলা প্রকৌশলী কর্মকর্তা মো. নাজিম উদ্দিন সহ প্রমূখ।

নবীগঞ্জে বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ উসব পালন

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি :: নবীগঞ্জে বিভিন্ন অনুষ্টানমালার মধ্যদিয়ে জাকজমভাবে গতকাল রবিবার দিনব্যাপী বাঙ্গালীর আবহমান কালের কৃষ্টি বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ বাংলা পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে নবীগঞ্জ সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট,আনন্দ নিকেতন,হিরামিয়া গার্লস স্কুলের উদ্যোগে পৃথক পৃথক অনুষ্টানমালার আয়োজন করা হয়। অনুষ্টানমালার মধ্যে ছিল, গান,নৃত্য,নাটক,একক অভিনয়,কৌতুক,কবিতা আবৃত্তি,দর্শক কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরন। নবীগঞ্জ আদর্শ সদর প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রঙ্গনে সম্মিলিত জোটের সভাপতি বিন্দু সুত্রধরের সভাপতিত্বে এবং ধ্রুব থিয়েটারের সভাপতি রাজেশ আচার্য্য এবং সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারন সম্পাদক বিপ্লব চন্দ্র দাশের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন,নবীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব ছাবির আহমদ চৌধুরী,প্যানেল মেয়র ২ বাবুল চন্দ্র দাশ। অণুষ্টানের উদ্বোধন করেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক প্রতিষ্টাতা সভাপতি প্রধান শিক্ষক আলী আমজাদ মিলন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন,বিশিষ্ট কবি বাদল কৃষ্ণ বনিক, নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক ও মৈত্রী সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংসদের সাধারন সম্পাদক উত্তম কুমার পাল হিমেল,অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট মিরাজ আলী,শহীদ মিয়া,গোপেশ চন্দ্র দাশ, সাংস্কৃতিক জোটের অর্থ সম্পাদক শামস খেলা,মাজহারুল ইসলাম,পৃথ্বিশ চক্রবর্ত্তী,মোঃ ফজলু মিয়া প্রমূখ। অনুষ্টানমালায় সংগীত পরিবেশন করেন শামস খেলা,মোঃ শাহান,শান্তা দাশ,কুহিনুর,রিয়া,জয়,কৌতুক পরিবেশন করেন মৈত্রী সাহিত্যর সাংস্কৃতিক সংসদের সাধারন সম্পাদক উত্তম কুমার পাল হিমেল,কবিতা আবৃত্তি করেন কবি পৃথ্বিশ চক্রবর্ত্তী সহ স্থানীয় শিল্পীবৃন্দ গান,নৃত্য,অভিনয়,কৌতুক,কবিতা পরিবেশন করেন। অনুষ্টানমালায় প্রচুর দর্শকশ্রোতার সমাগম ঘটে।

আত্রাইয়ে বৈশাখী উৎসবে বর্ণিল আয়োজন ও মঙ্গল শোভা যাত্রা

আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি :: নতুন বছর ১৪২৬ বরনে আত্রাইয়ে ছিল বর্ণাঢ্য আয়োজন। গত বোরবার সকালে শুরুতেই উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে একটি বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি উপজেলা চত্ত্বর থেকে বের হয়ে উপজেলা প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। শোভাযাত্রাটিতে নেতৃত্ব দেন নওগাঁ -৬ আসনের এমপি মোঃ ইসরাফিল আলম। এছাড়াও অংশগ্রহণ করেন আত্রাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ এবাদুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ছানাউল ইসলাম, আত্রাই থানার ওসি মোঃ মোবারক হোসেন, উপজেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। শোভাযাত্রাটিতে আত্রাই উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বর্ণিল ব্যানার, ফেস্টুন ও বাহারী সাজে অংশ গ্রহন করে। মঙ্গল শোভাযাত্রাটিতে উপজেলার সংস্কৃতিমনা মানুষ অংশ গ্রহণ করে। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে উপজেলা মাঠে উপস্থিত সবার মাঝে পান্তা খাবার বিতরন করা হয়। পরে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য বাহী লাঠি খেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে ১লা বৈশাখের কার্যক্রম শেষ হয়।

গাইবান্ধায় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ উৎসব পালন

গাইবান্ধা প্রতিনিধি :: মঙ্গল শোভাযাত্রা, পান্তা উৎসব, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা, চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গাইবান্ধায় রবিবার পহেলা বৈশাখে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান পালিত হয়। জেলা প্রশাসন, পৌরসভাসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ উৎসব পালন করে। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয় স্বাধীনতা প্রাঙ্গণ থেকে একটি বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে স্বাধীনতা প্রাঙ্গণে এসেই শেষ হয়। সেখানে এক আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি।
জেলা প্রশাসক আবদুল মতিনের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের উপ-পরিচালক নীলিমা আকতার বানু, পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান মিয়া, পৌর মেয়র অ্যাড. শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর মিলন, জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক প্রমুখ।
পদক্ষেপ বর্ষবরণ উপলক্ষে চৈত্র সংক্রান্তির দিন থেকে সংগঠনের নিজস্ব কার্যালয় চত্বরে তিনদিনব্যাপী বৈশাখী মেলার আয়োজন করে। জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়া এই মেলার উদ্বোধন করেন। এছাড়া শিশু একাডেমি ও শিল্পকলা একাডেমি, গণ উন্নয়ন কেন্দ্র, এসকেএস ফাউন্ডেশন, সুরবানী সংসদ, স্পন্দন শিল্পী গোষ্ঠী, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী, পৌরসভা, পদক্ষেপসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন শিশুদের চিত্রাংকন, রচনা, লোকসংগীত ও লোকনৃত্য প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।
এদিকে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে যমুনা নদীর বালাসিঘাটসহ বিভিন্ন স্থানে বৈশাখী মেলা বসে। এই সমস্ত মেলায় বিভিন্ন চারুকারু পণ্য, নানা ধরণের মিষ্টির দোকান বসে। মেলাগুলোতে নাগরদোলা, চর্কিসহ শিশুদের বিনোদনের জন্য নানা খেলাধুলার আয়োজন করে। এছাড়া অন্যান্য উপজেলাতেও পহেলা বৈশাখে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান পালিত হয়।

চাটমোহরে বরণ করা হলো বাংলা নববর্ষ
চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি :: পুরাতন বছরের বেদনা আর অপ্রাপ্তিকে ভূলে আজ চাটমোহরের মানুষ নিজস্ব সংস্কৃতি আর রূপের ছটায় বরণ করলো নতুন বাংলাবর্ষ ১৪২৬ কে। ছেলে থেকে বুড়ো সব বয়সের জাতি ধর্মের মানুষ নতুন প্রত্যাশায় উচ্ছাসে ভরিয়ে রাখে চাটমোহরকে। গোটা চাটমোহর যেন ভাসছিল আনন্দের বন্যায়।
দিবসটিকে বরণ করতে চাটমোহর উপজেলা প্রশাসন এক মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করে। উপজেলা গেট থেকে শুরু হওয়া মঙ্গল শোভাযাত্রাটি চাটমোহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষীণ শেষে ফের উপজেলা পরিষদে ফিরে আসে। পাবনা-৩ আসনের এমপি আলহাজ¦ মোঃ মকবুল হোসেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাসাদুল ইসলাম হিরা, নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আব্দুল হামিদ মাষ্টার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার অসীম কুমার, উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান ইছাহক আলী মানিক, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক ফিরোজা পারভীন, চাটমোহর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেখ নাসীর উদ্দিন, অনাবিল সংবাদ পত্রিকার সম্পাদক প্রভাষক ইকবাল কবীর রনজুসহ উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা, কর্মচারী, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এ মঙ্গল শোভাযাত্রায় অংশগ্রহন করে। মঙ্গল শোভাযাত্রা শেষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে পানতা পরিবেশন করা হয়। এসময় চাটমোহর শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীবৃন্দ সঙ্গীত পরিবেশেন করেন।
পাশাপাশি সময়ে চাটমোহর প্রেসক্লাবের উদ্যোগে নতুন বছরকে বরণ করে নেওয়া হয়। ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির স্মরণে প্রেসক্লাব প্রাঙ্গনে এক মিনিট নিরবতা পালন করেন সাংবাদিকরা। পরে পানতা পরিবেশন করা হয়। এসময় চাটমোহর প্রেসক্লাবের সভাপতি রকিবুর রহমান টুকুন, সহ সভাপতি ইশারত আলী, সম্পাদক সঞ্জিত সাহা কিংশুক, যুগ্ম সম্পাদক নূরুল ইসলামসহ সাংবাদিক শাহীন রহমান, অঞ্জন ভট্রাচার্য, সাইফুল ইসলাম, সুদীপ্ত কর্মকার, সোহেল খান, সাইফুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সকাল সাড়ে দশটার দিকে হান্ডিয়াল সড়ক পরিবহন শ্রমিকলীগের উদ্যোগে কৃষিজীবি, শ্রমজীবি, মৎসজীবি, পেশাজীবি, ব্যবসায়ী, শিক্ষক ছাত্র আদিবাসী ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের মানুষের অংশ গ্রহনে গনপরিষদ সদস্য অধ্যক্ষ সমাজী ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। পরে পানতা পরিবেশন করা হয়।
দুপুরের দিকে নিমাইচড়া ইউনিয়নের সমাজ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অধ্যক্ষ্য সমাজী ফাউন্ডেশনের আয়োজনে বর্ষবরণ ও লোকজ উৎসব ১৪২৬ অনুষ্ঠিত হয়। এলজিইডির প্রকল্প পরিচালক মমিন মুজিবুল হক সমাজী এ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আব্দুল হামিদ মাষ্টার, নব নির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক ফিরোজা পারভীন, উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান ইছাহক আলী মানিক, ডাঃ মোঃ গোলজার হোসেন প্রমুখ। এছাড়া এ অনুষ্ঠানে হান্ডিয়াল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম, নিমাইচড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী তৌফিকুল ইসলাম বাবলুসহ অত্র এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
এ অনুষ্ঠানে মাষ্টার অব ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ এ সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়ায় আমরা সমাজবাসীর পক্ষ থেকে মমিন মুজিবুল হক সমাজীকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয় এবং নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আকব্দুল হামিদ মাষ্টার, নব নির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক ফিরোজা পারভীন ও উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান ইছাহক আলী মানিককে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেন সমাজ গ্রাম বাসী। এছাড়া, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দিবসটিকে বরণ করতে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছে।



খুলনা বিভাগ এর আরও খবর

সুন্দরবনে ৯ ফুট লম্বা অজগর অবমুক্ত সুন্দরবনে ৯ ফুট লম্বা অজগর অবমুক্ত
বাগেরহাটে সরকারী ১২ পুকুর খননে চলছে পুকুর চুরি বাগেরহাটে সরকারী ১২ পুকুর খননে চলছে পুকুর চুরি
৭ বছরের শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগে রাজুকে চুল কেটে জুতার মালা গলায় দিয়ে ঘুরিয়েছে গ্রামবাসী ৭ বছরের শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগে রাজুকে চুল কেটে জুতার মালা গলায় দিয়ে ঘুরিয়েছে গ্রামবাসী
একধিক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক সালাম গ্রেফতার একধিক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক সালাম গ্রেফতার
ঐতিহ্যবাহী গোপাল চাঁদ বারুণী মেলায় লাখো ভক্তের পদচারনায় মুখরিত ঐতিহ্যবাহী গোপাল চাঁদ বারুণী মেলায় লাখো ভক্তের পদচারনায় মুখরিত
‘স্বাস্থ্য সেবা অধিকার, শেখ হাসিনার অঙ্গীকার’ শ্লোগানে ঝিনাইদহে স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহের উদ্বোধন ‘স্বাস্থ্য সেবা অধিকার, শেখ হাসিনার অঙ্গীকার’ শ্লোগানে ঝিনাইদহে স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহের উদ্বোধন
স্কুলের ছাদে অক্সিজেন ফ্যাক্টরি স্কুলের ছাদে অক্সিজেন ফ্যাক্টরি
কালীগঞ্জে গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু কালীগঞ্জে গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু
ঝিনাইদহে কোটি কোটি টাকার ইটের রাস্তা গিলে খাচ্ছে প্রভাবশালী মাটি ব্যবসায়ীর ঝিনাইদহে কোটি কোটি টাকার ইটের রাস্তা গিলে খাচ্ছে প্রভাবশালী মাটি ব্যবসায়ীর

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)