শিরোনাম:
●   করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে আরও একটি নতুন ওষুধ পেল ভারত ●   সন্তান ও স্বামীর অধিকার ফিরে পেতে চায় শাহনাজ ●   রাউজানে আগুনে পুড়েছে বসতঘর ●   হুইলচেয়ার নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে আনন্দ গ্রুপ ●   “আমি প্রবাসী” নামক অ্যাপের উদ্বোধন ●   মাহে রমজানকালে ৮ মে বিশ্ব থ্যালাসেমিয়া দিবস ●   সেফটি ট্যাংকের বিষক্রিয়ায় কুষ্টিয়াতে দুই নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু ●   বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ, রানু গ্রেফতার ●   ঈদযাত্রা নিরাপদ ও ঝুঁকিমুক্ত করতে দ্রুত পদক্ষেপ নিন : বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি ●   সিরাজগঞ্জে মুজিব ফোর্সের কমিটি গঠন ●   বেগম জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া ও ঈদ সামগ্রী বিতরন ●   বিটিভি নির্মান করেছে মাদকে সচেতনতায় তথ্যচিত্র ●   ঘরমুখো যাত্রীদের ভিড়ে ফেরিতে কোনো গাড়ি উঠতে পারেনি ●   ভারত ফেরৎ ১৪৭ বাংলাদেশীকে রাখা হয়েছে হোম কোয়ারেন্টাইনে ●   শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টারের মাজারে গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন নেতাদের শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন ●   কৃষকদের নাম মাত্র সহায়তা করে বাকী টাকা লোপাট ●   বিচ্ছিন্নতাবাদী গ্রুপ আরাকান আর্মি প্রশিক্ষণ শিবির থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে ধরা ●   সুমেল হত্যা মামলার আসামি র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ●   নেপালের করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে উঠছে ●   মহিষের কলিজা জব্দ করেছে মিরসরাই পৌর মেয়র ●   মাস্ক না পরায় রাঙ্গুনিয়ায় আটক- ৪৪ ●   শ্রমজীবীদের আর্মি রেটে রেশন ও ঈদের আগে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস প্রদানের দাবি জানিয়েছে বাম জোট ●   মিরসরাইয়ে ব্ল্যাক বেঙ্গল জাতের ছাগল বিতরণ ●   সুমেল ও দয়াল হত্যার ঘটনাস্থল পরিদর্শনে সিলেটের ডিআইজি ●   গাবতলীতে গম ও বোরো ধান সংগ্রহ উদ্ধোধন ●   সুন্দরবনে আবারো আগুন : তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন ●   প্রবাসীর স্ত্রীকে জবাই করে হত্যাচেষ্টা ●   স্বাস্থ্যবিধি মান্যকারীদেরকে শুভেচ্ছা জানালেন পুলিশ ●   মামুনুল হককে তৃতীয় দফায় পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত ●   মোরেলগঞ্জে সরকারিভাবে ২৭ টাকা কেজি দরে ধান ক্রয়ের উদ্বোধন
রাঙামাটি, শনিবার, ৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮


CHT Media24.com অবসান হোক বৈষম্যের
শনিবার ● ১ মে ২০২১
প্রথম পাতা » কক্সবাজার » ১০ মামলার আসামী ডাকাত সাদ্দামকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ
প্রথম পাতা » কক্সবাজার » ১০ মামলার আসামী ডাকাত সাদ্দামকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ
৭২ বার পঠিত
শনিবার ● ১ মে ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

১০ মামলার আসামী ডাকাত সাদ্দামকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

ছবি: সংবাদ সংক্রান্তকক্সবাজার প্রতিনিধি :: কক্সবাজারে সেই দূর্গম পাহাড়ি আস্তানা থেকে অস্ত্র ও ডাকাতিসহ ১০ মামলার আসামী ও দুই সহযোগীসহ সাদ্দাম বাহিনীর প্রধান সাদ্দাম হোসেনকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র, গোলাবারুদ, কিরিচ ও রামদাসহ উদ্ধার করা হয়। আজ শনিবার ১লা মে রাত ৪ টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত শহরের রুমালিয়ারছড়ার সিকদার পাড়ার মাটিয়াতলি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত প্রধান আসামী সাদ্দাম শহরের রুমালিয়ারছড়া সমিতিবাজার এলাকার মৃত সালেহ আমদের ছেলে। কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম বলেন, একটি ডাকাত গ্রুপ অস্ত্র নিয়ে রুমালিয়ারছড়া সমিতি বাজার এলাকায় অবস্থান করছে এমন সংবাদ পেয়ে শনিবার ভোরে সেই দুর্গম এলাকায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানে একটি বাসা থেকে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
এ সময় তাদের কাছ থেকে অস্ত্র, গুলি, রামদা, কিরিচ ও মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়। পরে জানা গেলো তিনজনের মধ্যে একজন সাদ্দাম বাহিনীর প্রধান সাদ্দাম হোসেন। যার বিরুদ্ধে প্রায় ১০টি নিয়মিত মামলা রয়েছে। কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের অফিসার ইনচার্জ শেখ মো. আলী জানান, সাদ্দামের বিরুদ্ধে হত্যা, অস্ত্র ও ডাকাতিসহ ১০টি নিয়মিত মামলা রয়েছে৷ কক্সবাজার শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন জানান, দীর্ঘ দিন চেষ্টার পর আজ শনিবার ভোরে সাদ্দাম বাহিনীর প্রধান সাদ্দাম হোসেনকে অস্ত্র, গুলি, কিরিচ ও রামদাসহ গ্রেপ্তার করতে পেরেছি। তার বিরুদ্ধে তিনটি হত্যা মামলাসহ প্রায় ১০টি নিয়মিত রয়েছে। সাদ্দাম বাহিনীতে রয়েছে ৫ থেকে ৬ জন সক্রিয় সদস্য। এর মধ্যে সাদ্দামের সাথে দুই সহযোগী গ্রেপ্তার হয়েছে। তারা পাহাড়ি এলাকা গুলোতে নিয়মিত অপরাধ কর্মকাণ্ড চালায়।
পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, কক্সবাজার শহরের কয়েকটি শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রুপের মধ্যে সাদ্দাম বাহিনী অন্যতম। সাদ্দাম প্রায় ৪ বছর ধরে শহরের পাহাড়ি ও দুর্গম এলাকা-রুমালিয়ার ছড়ার সমিতি বাজার, সিকদার বাজার, কক্সবাজার কারাগারের পেছনের এলাকা, পল্লানিয়া কাটা, আমতলী পাহাড়ি এলাকা, সাতিহিত্যা পল্লীর ভেতরে, বিজিবি ক্যাম্পের পশ্চিমে ও আলীর জাহান গরুর হালদা এলাকায় রাজত্ব করে চলছে। ওই পাহাড়ি এলাকায় গড়ে তুলেছে নিজেদের আস্তানা। রাতের বেলায় তাদের এসব এলাকায় অবাধ বিচরণ। পুলিশের ভয়ে তারা সহজেই প্রধান সড়কমুখী হয় না। ওই পাহাড়ি এলাকার বিশেষ করে জেল কারাগারের পেছনের বেশ কয়েকজন ব্যক্তি তাদের আশ্রয়দাতা হিসেবে রয়েছে। ওই এলাকার বেশ কয়েকজন স্থানীয়রা বলেন, সাদ্দাম বাহিনীর কাছে সবাই অসহায়। এখানের বেশ কয়েকটি এলাকায় তারা রাজত্ব চালিয়ে যাচ্ছে দীর্ঘদিন ধরে। তাদের হাতে জিম্মি প্রায় ৩০ হাজার মানুষ। মানুষদের নিয়মিত চাঁদা দিতে হয় তাদের। কারো বাড়িতে মেহমান আসলে ছিনতাইয়ের শিকার হয়। ঘর নির্মাণ করতে বা জায়গা ক্রয় বিক্রয় করলে তাদের দিতে হয় নিয়মিত চাঁদা। তাদের এসব অপকর্মের বিরুদ্ধে কথা বলায় নিহত হয়েছে অনেকজন। আহত হয়ে অনেকেই এখন পঙ্গু।



google.com, pub-4074757625375942, DIRECT, f08c47fec0942fa0

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)