শিরোনাম:
●   ঝালকাঠিতে কাভার্ড ভ্যানের চাপায় পিষ্ট হয়ে সেনাসদস্যসহ নিহত-২ ●   গীতা শিক্ষা সংসদ আয়োজিত বার্ষিক গীতা শিক্ষা পরীক্ষা ●   এখনও এনামুলের লাশকে ঘিরে ঘাতকদের উল্লাশ : আবু হাসান টিপু ●   ঝালকাঠিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৮ বছরের শিশু নিহত : আহত-৪ ●   শেখ রাসেল কম্পিউটার ল্যাবের ১৩টি ল্যাপটপ চুরি ●   প্রধানমন্ত্রী পক্ষে শীতবস্ত্র দিলেন শফিক চৌধুরী ●   ইচ্ছা মানব উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে চট্টগ্রামে আলোচনা সভা ●   কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলায় তিন বন্ধুর যাবজ্জীবন ●   সীমান্তে হত্যা এবং চোরাচালান বন্ধের দাবিতে সমাবেশ ●   বিতর্কিত পাঠ্যক্রম বাতিলের দাবিতে মিরসরাইয়ে মানববন্ধন ●   শেষযাত্রায়ও সামশুল আলমের মৃতদেহ উঠানো হয়নি বাড়িতে ●   আত্রাইয়ে এ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ●   ঝালকাঠির ঝুঁকিপূর্ণ বাসন্ডা ব্রিজটি সড়ক বিভাগের সোনার ডিমপাড়া হাঁস ●   চুয়েটের ৪৮তম ব্যাচের ৪দিনব্যাপী শিক্ষা সমাপনী উৎসব শুরু ●   আত্রাইয়ে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সিসি ক্যামেরা উদ্বোধন ●   খাদ্য পণ্যের দাম কমানোর দাবিতে রাঙামাটিতে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির বিক্ষোভ সমাবেশ ●   বাগবাড়ীতে কোকোর ৮ম মৃত্যু বাীর্ষকীতে স্মরন সভা ●   রাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মাহবুব আরা, সম্পাদক মহিম ●   বারইয়ারহাটে সরকারি যায়গা দখল মুক্ত : দুই প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা ●   কনকনে শীত উপেক্ষা করে বোরো চাষে ব্যস্ত কৃষকেরা ●   পানছড়িতে পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয় পরিদর্শন ●   চুয়েটে ৪ দিনব্যাপী শিক্ষা সমাপনী উৎসব ‘সংবর্ত-১৭’ আজ শুরু ●   রোহিঙ্গা ক্যাম্পে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান : দুই জঙ্গি নেতা আটক ●   বাগেরহাটে জমির বিরোধ নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১৫ ●   প্রতারণার ফাঁদে লাখ টাকা খোয়ালেন ব্যবসায়ী : আটক-১ ●   আক্কেলপুরে মালামাল সহ ছিনতাইকৃত ট্রাক উদ্ধার ●   চুয়েট ক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা ●   ঈশ্বরগঞ্জে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু ●   পানছড়িতে সমবায় সদস্য দের নিয়ে প্রশিক্ষণ সম্পন্ন ●   ঈশ্বরগঞ্জে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখায় ১৭ হাজার টাকা জরিমানা
রাঙামাটি, রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯



CHT Media24.com অবসান হোক বৈষম্যের
মঙ্গলবার ● ২৪ মে ২০২২
প্রথম পাতা » খুলনা বিভাগ » ঝিনাইদহ হাসপাতালে নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা চিকিৎসকের সাক্ষর জাল করে ওষুধ উত্তোলন
প্রথম পাতা » খুলনা বিভাগ » ঝিনাইদহ হাসপাতালে নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা চিকিৎসকের সাক্ষর জাল করে ওষুধ উত্তোলন
২৯৮ বার পঠিত
মঙ্গলবার ● ২৪ মে ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ঝিনাইদহ হাসপাতালে নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা চিকিৎসকের সাক্ষর জাল করে ওষুধ উত্তোলন

--- ঝিনাইদহ প্রতিনিধি :: ঝিনাইদহ আড়াই’শ বেড জেনারেল হাসপালে পাঁচ মাস ধরে গ্যাসের ওষুধ নেই। গত বছরের ডিসেম্বর থেকে বেশ কিছু জীবনরক্ষাকারী ওষুধের সাপ্লাই বন্ধ রয়েছে। রাষ্ট্র মালিকানাধীন এসেনসিয়াল ড্রাগস কোম্পানি লিমিটেড (ইডিসিএল) গ্যাষ্ট্রিকের পর্যাপ্ত ওষুধ সরবরাহ করতে পারছে না। এদিকে সরকারী ওষুধ না পেয়ে হতদরিদ্র রোগীরা ফিরে যাচ্ছেন। অনেকেই হাসপাতালের ওষুধ না পেয়ে কিনতেও পারছেন না। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত বছরের ডিসেম্বর থেকে ওমিপ্রাজন, প্যান্টোপ্রাজল, এন্টাসিড, ভিটামিন বি ও ডায়াবেটিসের ওষুধ মেটফরমিন ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল থেকে পাওয়া যাচ্ছে না। ফার্মাসিষ্ট ও ভান্ডার রক্ষকরা বলছেন বগুড়া এসেনসিয়াল ড্রাগস কোম্পানি (ইডিসিএল) থেকে এ সব জীবনরক্ষাকারী ওষুধ সরবরাহ করে থাকে। কিন্তু চাহিদা থাকার পরও দিতে পারছে না। ফলে প্রতিনিয়ত রোগী ও প্রভাবশালীদের কাছে নাজেহাল হতে হচ্ছে হাসপাতালের স্টাফদের। ঝিনাইদহ আড়াই’শ বেড জেনারেল হাসপালের স্টোরকিপার সানোয়ার হোসেন জানান, আমি নতুন যোগদান করেছি। যোগদান করার পর থেকেই দেখছি কিছু ওষুধ ভান্ডারে নেই। আমরা সর্বক্ষন ইডিসিএলের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছি। সরবরাহ করলেই হাসপাতালের ফার্মেসি ও ইনডোরে সাপ্লাই দেওয়া হবে। তিনি বলেন ইতিমধ্যে আমরা ৫০ হাজার এন্টাসিড, ৩০ হাজার ওমিপ্রাজল ও ৫০ হাজার পেনটোপ্রাজল পেয়েছি। শনিবার থেকে সেগুলো দেওয়া হবে। হাসপাতালের ফার্মাসিষ্ট রুহুল আমিন জানান, সপ্তাহে আমাদের এক লাখ করে গ্যাসের বড়ি লাগে। সেই হিসেবে বছরে ৫২ লাখ দরকার হয়। তিনি বলেন হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা প্রতিটি রোগী গ্যাসের বড়ি নেয়। ফলে সপ্তাহে দশ থেকে পনের হাজার গ্যাসের বড়ি প্রয়োজন হয়। তিনি বলেন জরুরী ভাবে কিছু ওষুধ (গ্যস্ট্রিকের) পাওয়া গেছে। তা হয়তো ৫/৬ দিন চলতে পারে। ফার্মাসিষ্ট রুহুল আমিন বলেন, ৪/৫ মাস ধরে গ্যাসের কোন ওষুধ ছিল না। এ সময়টা তাদের অনেক নাজেহাল হতে হয়েছে। বিশেষ করে কিছু প্রভাবশালী রোগী তাদেরকে নানা ধরণের গালমন্দও করেছেন। অভিযোগ পাওয়া গেছে বিভিন্ন ক্লিনিকের দালাল, হাসপাতালের স্টাফ ও আড়াই’শ বেড জেনারেল হাসপালে ইর্ন্টানি করতে আসা শত শত শিক্ষার্থী প্রতিদিন গ্যাস্ট্রিকসহ বিভিন্ন আইটেমের ওষুধ নিয়ে থাকেন। তাদের কারণে দ্রুত ভান্ডারের ওষুধ ফুরিয়ে যায়। বিশেষ করে গ্যাসের বড়ির সংকট দেখা দেয়। এর আগে হাসপাতালের আশেপাশে বেসরকারী ক্লিনিকে কর্মরর্ত ম্যাটস, আইএইচটি ও নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা চিকিৎসকের সাক্ষর জাল করে এন্টিবায়োটিক ওষুধ উত্তোলনের সময় ধরা পড়ে। কিন্তু তাদের কোন শাস্তি দেয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। ওই চক্রটি এখনো একই ভাবে ওষুধ উত্তোলন করে যাচ্ছে। হাসপাতালের ইনডোর ও আউটডোর থেকে দেদারছে ওষুধ উত্তোলনের প্রবনাতা রোধ করা না গেলে প্রয়োজনের সময় রোগীরা বিপদে পড়তে পারেন বলেও অনেকে মন্তব্য করেন। ব্যাপারীপাড়ার হতদরিদ্র সবুরা খাতুন নামে এক রোগী বলেন, গত ৫ মাস ধরে তিনি হাসপাতাল থেকে কোন গ্যাসের বড়ি পাননি। ধারদেনা করে তাকে বড়ি কিনে খেতে হয়েছে। পাগলাকানাই এলাকার রুহুল শেখ জানান, বাজারে একটা গ্যাসের বড়ি ৮/১০ টাকা দাম। হাসপাতাল থেকে তিনি কোন ওষুধ পাননি। বিষয়টি জানতে আড়াই’শ বেড জেনারেল হাসপালের তত্বাবধায়ক ডাঃ রেজাউল ইসলামের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হয়, কিন্তু তিনি ফোন ধরেননি। সিভিল সার্জন ডাঃ সুপ্রা রানী দেবনাথ জানান, তিনি তো হাসপাতালের দায়িত্বে নেই। তবে যতদুর জানি ওষুধ কেনার জন্য টেন্ডার আহবান করা হয়েছে। উপজেলা পর্যায়ে সব রকমের ওষুধ সাপ্লাই আছে বলেও তিনি জানান। তিনি বলেন ক্লিনিকের দালাল, হাসপাতালের স্টাফ ও ইর্ন্টানি করতে আসা শিক্ষার্থীদের দেদারছে ওষুধ দেওয়া ঠিক হচ্ছে না। এটা দ্রুত নিয়ন্ত্রন করা দরকার।





google.com, pub-4074757625375942, DIRECT, f08c47fec0942fa0

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)