শিরোনাম:
●   আইন সংশোধন যত বিলম্ব হবে, তামাকজনিত মৃত্যু ততই বাড়বে ●   ভারতকে রেল করিডোর দিয়ে বাংলাদেশ কোন বিপদ ডেকে আনছে - সরকারের কাছে ব্যাখ্যা দাবি ●   সাংবাদিক রিজুর উপর হামলার প্রতিবাদে উত্তাল কুষ্টিয়া ●   দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে সাংবাদিক এর বাগান বাড়ি পুড়ে দেয়ার আজ ৪ মাস : মিলেনি স্থানীয় প্রশাসন এর সহযোগিতা ●   বাগবাড়ীতে বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থ্যতা কামনায় দোয়া ●   মিরসরাইয়ে আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন ●   কাউখালীতে আওয়ামী লীগের ৭৫ তম বর্ষপূর্তি উদযাপন ●   নবীগঞ্জে বন্যা দুর্গত এলাকায় সিলেট বিভাগীয় কমিশনার কর্তৃক ত্রাণ বিতরণ ●   ঘোড়াঘাটে আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ●   খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন ●   মোরেলগঞ্জে আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত ●   ঈশ্বরগঞ্জে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত ●   মানিকছড়িতে ১৯৭ পিচ ইয়াবাসহ গ্রেফতার-১ ●   ঘোড়াঘাটে এক যুবকের লাশ উদ্ধার ●   রাউজানে শালিস বৈঠকে হামলায় আহত-৮ ●   সন্দ্বীপে ছয় কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার-২ ●   মিরসরাই নাবিক কল্যাণ সমবায় সমিতির সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ●   নবীগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী চড়কপূজা অনুষ্টিত ●   ঝিনাইদহে মসজিদের কমীটি গঠনকে কেন্দ্র করে তিনজনকে পিটিয়ে জখম ●   মিরসরাইয়ে বৃক্ষরোপণ অভিযান ●   ঈশ্বরগঞ্জে মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে সমকামিতার অভিযোগ ●   জরুরী ভিত্তিতে বন্যাদুর্গত অঞ্চলে খাদ্য ও ত্রাণসামগ্রী পৌঁছান : সাইফুল হক ●   ঘোড়াঘাটে কৃষক লীগ নেতার তালকান্ড ●   রাউজানে পুকুরে ডুবে কন্যা শিশুর মৃত্যু ●   সাজেকে নাঈম হত্যা মামলায় ইউপিডিএফ নেতাদের জড়িত করায় নিন্দা ●   ঘোড়াঘাটে নবীন বরণ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ●   বাঘাইছড়ি ইউএনওকে প্রত্যাহারের দাবিতে পানছড়িতে বিক্ষোভ ●   দুর্বার প্রগতি সংগঠনের কার্যকরী পরিষদ গঠন ●   নবীগঞ্জে ভয়াবহ বন্যার আশংকা : হুমকিতে বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ড ●   কিম জং উন - ভ্লাদিমির পুতিন মধ্যে ঐতিহাসিক প্রতিরক্ষা চুক্তি স্বাক্ষর
রাঙামাটি, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১



CHT Media24.com অবসান হোক বৈষম্যের
রবিবার ● ১৪ জানুয়ারী ২০২৪
প্রথম পাতা » কৃষি » দুইবছরে বরই চাষ করে ব্যাপক সফলতার মুখ দেখেছেন রশিদ
প্রথম পাতা » কৃষি » দুইবছরে বরই চাষ করে ব্যাপক সফলতার মুখ দেখেছেন রশিদ
২০০ বার পঠিত
রবিবার ● ১৪ জানুয়ারী ২০২৪
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

দুইবছরে বরই চাষ করে ব্যাপক সফলতার মুখ দেখেছেন রশিদ

--- রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি :: ভাগ্য পরিবর্তনের আশায় গিয়েছিলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে। প্রায় ১৩ বছর প্রবাস জীবনে তাঁর ভাগ্য পরিবর্তনে বড় বাধা হয়ে পড়ে করোনা। করোনার সময়ে কাজ হারিয়ে তিনি দেশে চলে আসেন। দেশে এসে মিজানুর রশিদ সিদ্ধান্ত নেন, নিজের খালি জমিতে বরই চাষ করার। বরই চাষ করে তিনি আবারও বিদেশ চলে যান। সেখানে তাঁর ভাগ্যর চাকা পরিবর্তনা হচ্ছেনা। তিনি আবারও সিদ্ধান্ত নেন দেশে চলে আসবেন। দেশে এসে আরও বড় পরিসরে বরই চাষের পরিকল্পনা করেন তিনি। বর্তমানে রশিদের সঠিক পরিকল্পনা ও পরিশ্রমে তিনি এখন সফল একজন বরই চাষি। তিনি গত ১৩ বছরে প্রবাসে যেটি করতে পারেননি, বর্তমানে দেশে এসে গত দুইবছরে বরই চাষ করে ব্যাপক সফলতার মুখ দেখছেন। এ ব্যাপারে সফল বরই চাষি ও তরুণ উদ্যোক্তা মিজানুর রশিদ বলেন, ‘রোপণের প্রথম বছর এই বাগানের প্রায় চারশতাধিক বরই গাছ হতে প্রায় ২ লাখ ৮৫ হাজার টাকা বরই বিক্রি হয়। চলতি বছরে তিনি ১০ লাখ টাকার বরই বিক্রির আশা করছেন। এই বাগানে তাঁর প্রায় ৬ লাখ টাকা মতো খরচ হয়েছে বলে তিনি জানান। রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পোমরা সত্যপীর মাজার সংলগ্ন কাপ্তাই সড়কের দক্ষিণ পাশে বর্তমানে তাঁর এ.এস.এগ্রো বাংলাদেশ নামের বরই বাগানটি মানুষের নজর কাড়ছে। প্রায় ৪ কানি জমিতে দুই’টি বরই বাগান করা হয়েছে, সেখানে রোপণ করা হয়েছে বল সুন্দরী ও ভারত সুন্দরী জাতের বরই গাছের চারা। এই বরই যেমন রসালো, তেমনি মিষ্টি। সরেজমিনে মিজানুর রশিদের বাগানে গিয়ে দেখা যায়, বাগানজুড়ে চলছে বরই সংগ্রহের কাজ। সংগ্রহ করা পরিপক্ব বরই নির্দিষ্ট স্থানে স্তূপ করে রাখা হচ্ছে। পরে আশাপাশের বাজারে বিক্রির উদেশ্য চলে যাচ্ছে। স্থানীয় পাইকাররা বাগানে এসে বরই কিনে নিয়ে যাচ্ছে। বাগানে বরইয়ের ভারে প্রতিটি গাছ মাটিতে নুয়ে পড়ছে। অবস্থা এমন যে, গাছের পাতার চেয়ে গাছে বরই বেশি দেখা যাচ্ছে। বরই গুলো খেতে যেমন মিষ্টি দেখতে আপলের মতো মনে হবে। বাগানের চারপাশে বেড়া দেওয়া রয়েছে। পাখি ঠেকাতে সারা ক্ষেতের ওপর দিয়ে নেট জাল দিয়ে ঢেকে দিয়েছেন। এতে করে কোনো পাখি আর ক্ষেতের বরই নষ্ট করতে পারছে না। মিজানুর রশিদের বরই বাগান দেখতে নানা স্থান থেকে লোকজনের প্রতিদিন আসছেন। যাওয়ার সময় কেউ কেউ হাতে করে গাছপাকা বরই কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। অনেকে আবার বরই খেয়ে সখিন চাষি রশিদের ব্যাপক প্রশংসা করছেন। তিনি আরও বলেন, জীবিকার তাগিদে প্রবাসে ১৩ বছর কঠোর পরিশ্রম করেও ভাগ্য বদলাতে পারেনি। কিন্তু আমি কখনো হতাশ হয়নি, আমি মনে করি এই যুদ্ধে আমি সফল হয়েছি। তিনি বলেন বল সুন্দরী ও ভারত সুন্দরী জাতের বরই চাষে দ্রুত ফলন মিলে। বর্তমানে আমার এ বাগানে কর্মসংস্থান হয়েছে ৪ নারীর। এখানে কাজের টাকায় চলছে তাদের সংসার। আগামীতে আমার এই বাগানের পাশে আরও বড়কিছু করার পরিকল্পনা রয়েছে। আশা করছি সেখানে মানুষের কর্মসংস্থান হবে। বর্তমানে বেকার যুবকদের মাঝে মিজানুর রশিদ এক অনন্য উদাহরণ বলে বনে করছেন এলাকার মানুষ।





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)