শিরোনাম:
●   নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে প্রার্থীকে জরিমানা ●   গাজীপুরে বিএনপির নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা ●   গাজীপুরে শ্রমিক-পুলিশ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ●   গনগ্রেফতার বাড়িঘর ভাংচুর নির্বাচন তদন্ত কমিটির চেয়ারম্যনের কাছে লিখিত অভিযোগ ●   উশু প্রতিযোগিতায় বিকেএসপি চ্যাম্পিয়ন ●   গাইবান্ধায় সুমি হত্যায় স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়িকে গ্রেপ্তারের দাবি ●   ১৪ ডিসেম্বর মোরেলগঞ্জ মুক্ত দিবস ●   মহালছড়িতে সারাদিন প্রচারণায় ব্যস্ত কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ●   সরিষা ফুলের মৌ মৌ গন্ধে মুখরিত ফসলের মাঠ ●   সিঙ্গিনালাতে শ্রীমৎ উ পেন্ডিতা মহাথের এর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উদযাপনের ব্যাপক প্রস্তুতি ●   প্রতিদিন শত শত মন কাঠ পোড়াচ্ছেন কালীগঞ্জ এ.এস.বি.এম ব্রিকস্ ●   বান্দরবানে বিএনপি প্রার্থী সাচিং প্রুর সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় ●   গাইবান্ধায় মনোনয়ন প্রত্যাহারে ভোটের মাঠে ৩৮ জন প্রার্থী ●   নওগাঁর জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে কৃত্রিম উপায়ে মধু সংগ্রহ ●   বান্দরবা‌নে ‌নির্বাচন চলাকা‌লীন পযর্টন ভ্রম‌নে নি‌ষেধাজ্ঞা ●   বান্দরবানে রোকেয়া দিবসে শ্রেষ্ঠ মা হিসেবে সম্মাননা পেলেন রুবি ●   আলীকদমে ইটভাটা মালিকদের রাম রাজত্ব : চলছে বৃক্ষ নিধনের মহোৎসব ●   বিশ্বনাথে সাংবাদিকদের সাথে এহিয়া চৌধুরী’র মতবিনিময় ●   রাঙামাটি-২৯৯ আসনে বিপ্লবী জুঁই চাকমার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণার মধ্যে দিয়ে প্রচারনা শুরু ●   কাপাসিয়ায় নৌকার পক্ষে রিমি, ধানের শীষের পক্ষে রিয়াজুল ●   রাঙামাটিতে মনি স্বপন দেওয়ানের সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় ●   রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসে সেমিনার উদ্বোধন করলেন সেনা প্রধান ●   ময়মনসিংহের ১১টি সংসদীয় আসনে ৫৭ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ ●   বান্দরবান ৩০০নং আসনে প্রতীক বরাদ্দ পেলেন এমপি প্রার্থীরা ●   রাঙামাটি-২৯৯ আসনে প্রতীক বরাদ্দ পেলেন এমপি প্রার্থীরা ●   জনতার মুখোমুখি অনুষ্ঠান করার লক্ষে গাতলীতে সুজনের সভা ●   রাঙামাটি-২৯৯ আসনের ২১টি কেন্দ্রে ব্যবহার হবে হেলিকপ্টার ●   কালীগঞ্জে ছেলের ছুরিকাঘাতে বাবা খুন ●   বান্দরবানে ২ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ●   রাঙামাটি-২৯৯ আসনে প্রত্যাহার ৪: বিপ্লবী জুঁই চাকমাসহ চূড়ান্ত প্রতিদ্বন্দিতায়-৬
রাঙামাটি, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ন ১৪২৫


CHT Media24.com অবসান হোক বৈষম্যের
সোমবার ● ২৩ জুলাই ২০১৮
প্রথম পাতা » অর্থ-বাণিজ্য » পশ্চিমাঞ্চলে যাত্রীবাহি ট্রেন সংকট: যাত্রীদের দুর্ভোগ
প্রথম পাতা » অর্থ-বাণিজ্য » পশ্চিমাঞ্চলে যাত্রীবাহি ট্রেন সংকট: যাত্রীদের দুর্ভোগ
১৯১ বার পঠিত
সোমবার ● ২৩ জুলাই ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

পশ্চিমাঞ্চলে যাত্রীবাহি ট্রেন সংকট: যাত্রীদের দুর্ভোগ

---গাইবান্ধা প্রতিনিধি :: (৮ শ্রাবণ ১৪২৫ বাঙলা: বাংলাদেশ সময় রাত ১০.১৮মি.) পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের বোনারপাড়া-সান্তাহার-লালমনিরহাট সেকশনে যাত্রীবাহি ট্রেন সংকটের ফলে রেল যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। প্রয়োজনীয় ইঞ্জিন, বগি, ড্রাইভার, গার্ড ও জনবল সংকটের অজুহাত দেখিয়ে বাংলাদেশ রেলওয়ে উত্তরাঞ্চলের রেল যোগাযোগের কোন উন্নয়ন হচ্ছে না। ফলে ক্রটিপূর্ণ ইঞ্জিন ও বগি দিয়ে খুড়িয়ে খুড়িয়ে চলছে পশ্চিমাঞ্চল রেলের ট্রেনগুলো। প্রতিনিয়তই ট্রেনগুলো বিলম্বে চলাচল করার কারণে যাত্রীদের দুর্ভোগ বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে যাত্রীরা ট্রেনে চলাচল পরিহার করে বাসে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে। এ জন্য জনদুর্ভোগ যেমন বেড়েছে, তেমনি রেলের যাত্রীর পরিমাণও ব্যাপক হারে কমেছে।

প্রসঙ্গত, বোনারপাড়া থেকে বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের লালমনিরহাট-বোনারপাড়া-সান্তাহার রেললাইনে লোকাল, মেইল, আন্ত:নগরসহ এখন প্রায় ১২টি আপ-ডাউন ট্রেন চলাচল করে থাকে। অথচ আগে ২০টি ট্রেন আপ-ডাউন করতো। প্রয়োজনীয় ইঞ্জিনের অভাব দেখিয়ে বোনারপাড়া থেকে দিনাজপুরের মধ্যে চলাচলকারি অত্যান্ত জনগুরুত্বপূর্ণ যাত্রীবাহি ট্রেন রামসাগর, ৪৮১ ও ৪৮২ আপ ও ডাউনসহ ৪টি ট্রেন দীর্ঘদিন যাবত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ইঞ্জিন, ড্রাইভার, গার্ড ও জনবলের সংকট দেখিয়ে যথেষ্ট আয় ও যাত্রীদের চাহিদা থাকা সত্ত্বেও কোন কারণ ছাড়াই এই ট্রেনগুলো বন্ধ দেয়া হয়। অথচ রেলওয়ের একটি বিশেষ সুত্রে জানা গেছে, রামসাগর আপ ও ডাউন ট্রেন দুটির প্রয়োজনীয় ইঞ্জিন, বগি, গার্ড এবং ড্রাইভার এখন বহাল থাকা সত্ত্বেও উত্তরাঞ্চল রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ওই ট্রেন দুটি এখনও চালু করছে না। এদিকে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানাতে অবসরজনিত কারণে দক্ষ জনবল দিন দিন কমে যাওয়ায় পুরাতন ইঞ্জিন, বগিগুলোর মেরামত কাজও বিঘিœত হচ্ছে। ফলে প্রয়োজনীয় মেরামতের অভাবেও সামান্য ত্র“টি বিচ্যুত নিয়েই রেল ইঞ্জিন ও বগিগুলো অযতেœ অবহেলায় দীর্ঘদিন ইয়ার্ডে পড়ে থেকে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এতে সমস্যা তো কমছেই না বরং সংকট আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে।

রেলওয়ের সূত্র থেকে জানা গেছে, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়েকে সবসময়ই অবহেলার চোখে দেখা হয়েছে। দিনাজপুর-পঞ্চগড়-লালমনিরহাট-বোনারপাড়া-সান্তাহার-বালাসী এই রেল সেকশনে কখনই নতুন ইঞ্জিন ও বগি দেয়া হয়নি। বিদেশ থেকে আমদানী করা নতুন ইঞ্জিনগুলো দীর্ঘদিন পূর্বাঞ্চলে চলাচলের পর পরাতন হলে বা ক্রটি দেখা দিলেই তা মেরামত করে পাঠিয়ে দেয়া হয় পশ্চিমাঞ্চলে। উত্তরাঞ্চলে নতুন ইরানিয়ান কোচ নামে রেলওয়ে বগি সরবরাহ করা হলেও তাও আসলে মেরামত করে নতুন নামে চালানো হয়েছে বলে জানা গেছে। পশ্চিমাঞ্চল রেল সেকশনের রেলযাত্রীদের সাথে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের বিদ্যমান বিমাতাসূলভ আচরণের কোন কারণ জানা যায়নি।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)