শিরোনাম:
●   ঝালকাঠিতে ৮৫ হাজার শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানো হবে ●   ঘর নির্মাণে প্রতিবেশির বাধার অভিযোগ ●   প্রকাশককে হুমকি দেওয়া দুলালের নামে থানায় জিডি ●   ঘোড়াঘাটে এক রোহিঙ্গা আটক ●   ঝিনাইদহ জেলা বিএনপি’র সম্মলন : বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় সভাপতি মজিদ, সম্পাদক পদে ৩ জনের লড়াই ●   বাগবাড়ী মহিলা কলেজ ঝড়ে লন্ড-ভন্ড ●   একটি ট্রাকসহ আন্তঃজেলার চার ডাকাত গ্রেফতার ●   শ্বশুরের প্রতারণার স্বীকার হলেন জামাই ●   বাজার নিয়ন্ত্রণ আর দেশ চালাতে না পারলে ক্ষমতা ছেড়ে দিন : সাইফুল হক ●   জাতীয় কবি নজরুল অগ্রসর চিন্তা-চেতনার প্রতীক হয়ে থাকবেন : চুয়েট ভিসি ●   উৎসুক জনতা র‍্যাবকে ডাকাত সন্দেহে আক্রমন : আহতদের চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় ●   রামগড়ে সয়াবিন তেলের ওজনে কারচুপি ●   মিরসরাইয়ে যাত্রীবাহী বাস থেকে ইয়াবাসহ গ্রেফতার-১ ●   বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে “ভোক্তা অধিকার বিভাগ” চায় ক্যাব ●   ঝালকাঠিতে ইউপি চেয়ারম্যানের বিক্রিত ব্রিজের মালামাল জনতার হাতে আটক ●   বিশ্বনাথের খাজাঞ্চী ইউনিয়নে ত্রাণ বিতরণ ●   ঝিনাইদহ হাসপাতালে নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা চিকিৎসকের সাক্ষর জাল করে ওষুধ উত্তোলন ●   ঘোড়াঘাটে সিটি ব্যাংকের আলোচনা সভা ●   শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সকলকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে : আমু ●   রেডব্রিজ লিবারেল ডেমোক্র্যাটস শাখার ধন্যবাদ ●   সিলেটে ত্রাণ নিয়ে আসার পথে দুর্ঘটনার শিকার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের গাড়ি ●   পানছড়িতে নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব গ্রহন ●   কাপ্তাই সেনা জোনে হেডম্যান কারবারী সম্মেলন ●   নবীগজ্ঞে জামাত নেতা ছলিম গ্রেফতার ●   মহালছড়িতে সরকারি টাকা নিয়ে উধাও ●   মিরসরাইয়ে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ●   রক্তের হোলিখেলায় মেতে উঠেছে পাঞ্জের ও সবুজ হত্যা মামলার প্রধান আসামি দুলাল ●   আত্রাইয়ে ৭ জুয়াড়িসহ গ্রেপ্তার-৪ ●   সিরাজগঞ্জে হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড ●   বড়হাতিয়ায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের গুরু দায়িত্ব নিতে চান ইমন
রাঙামাটি, শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯



CHT Media24.com অবসান হোক বৈষম্যের
সোমবার ● ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২২
প্রথম পাতা » খুলনা বিভাগ » ৭ বার স্থান পরিবর্তন করেও বাঁচতে পারছেন না গ্রামের মানুষ : নদীর গর্ভে বিলীন হচ্ছে ভিটেবাড়ি
প্রথম পাতা » খুলনা বিভাগ » ৭ বার স্থান পরিবর্তন করেও বাঁচতে পারছেন না গ্রামের মানুষ : নদীর গর্ভে বিলীন হচ্ছে ভিটেবাড়ি
১৬৬ বার পঠিত
সোমবার ● ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

৭ বার স্থান পরিবর্তন করেও বাঁচতে পারছেন না গ্রামের মানুষ : নদীর গর্ভে বিলীন হচ্ছে ভিটেবাড়ি

ছবি : সংবাদ সংক্রান্তজাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি :: ঝিনাইদহের শৈলকুপায় গড়াই নদী আগ্রাসী হয়ে উঠেছে। ক্রমাগত ভাঙ্গনে বিত্তশালী শত শত পরিবার যাযাবর জীবন যাপন করছেন। ভিটেবাড়ি ও চাষের জমি হারিয়ে নিমিষেই মানুষ পরিণত হচ্ছে সহায় সম্বলহীন। যে হাতে মুঠো ভরে সাহায্য দিত অন্যকে, সেই হাত এখন সাহায্যের জন্য হাত বাড়ায়। সরেজমিন তথ্য নিয়ে জানা গেছে শৈলকুপার সারুটিয়া, ধলহরচন্দ্র ও হাকিমপুর ইউনিয়নের নদী পাড়ের গ্রামগুলোতে এখন আতংক বিরাজ করছে। শৈলকুপার বড়ুরিয়া থেকে কৃষ্ণনগর পর্যন্ত দুই কিলোমিটার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে ফাটল ধরেছে। হাকিমপুর ইউনিয়নের মাদলা ও খুলুমবাড়িয়া, ধলহরাচন্দ্র ইউনিয়নের কাশিনাথপুর, মাজদিয়া, উলুবাড়িয়া, নতুনভুক্ত মালিথিয়া, চরপাড়া ও লাঙ্গলবাঁধ বাজার ঝুকির মুখে পড়েছে। রাতদিন সমানতালে ভাঙ্গছে গড়াই নদী। মানচিত্র বদলের পাশাপাশি ঘর, বাড়ি ও চাষের জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। কৃষ্ণনগর গ্রামের আব্দুল মালেক মন্ডলের টিনের চৌরি ঘর ছিল, মাঠে ১০ বিঘা চাষের জমিও ছিল। এগুলো এখন তার কাছে শুধুই স্বপ্ন। ভীটাবাড়ি আর চাষের জমি সবই চলে গেছে গড়াই নদীর গর্ভে। এখন থাকেন অন্যের জমিতে। একেকবার ঘর ভেঙ্গেছে, আর বাঁচার জন্য নতুন করে ঘর বেঁধেছেন। সাতবার বসতবাড়ির জায়গা করেছেন। একই গ্রামের আব্দুর রহিম মন্ডল জানান, তিনি বসতবাড়ির জায়গা পাল্টেছেন ৬ বার। তারও ৮ বিঘা জমি ছিল। পাঁকা পোতার টিনের চৌরি ঘর ছিল। বাড়িতে গরু-ছাগল ছিল। যা হারিয়ে এখন অন্যের জমিতে কৃষি শ্রমিকের কাজ করেন। তারও সবকিছু চলে গেছে এই গড়াই নদীতেই। এই অবস্থা ঝিনাইদহ শৈলকুপা উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামের উত্তরপাড়ার। যে পাড়াতে ৪০ টি পরিবার বসবাস করতেন, এখন সেখানে আছেন ৫ টি। বাকিরা নদী ভাঙ্গনে সব হারিয়ে অন্যত্র চলে গেছেন। অনেকে ভিটাবাড়ি হারিয়ে যাবাবরের মতো জীবন কাটাচ্ছেন। যারা এখনও আছেন তারাও নদী ভাঙ্গনের ঝুকিতে। আবু তালেব জানান, উত্তরপাড়ায় বসবাস করতেন আইন উদ্দিন, আলিম উদ্দিন, আব্দুল হাকিম, জোয়াদ আলী, আবু কালাম মন্ডল, সিরাজ উদ্দিন, উজ্জল আলী, আল্লাল উদ্দিন, রবিউল ইসলাম, আবু সাঈদ, শহিদুল ইসলামসহ প্রায় ৪০ টি পরিবার। যাদের মধ্যে এখন আব্দুল মালেক, আব্দুর রহিম, আবু তালেব, আশরাফুল ইসলাম ও হাসান আলীর পরিবার রয়েছে। বাকিরা নদী গর্ভে সব হারিয়ে অন্যত্র চলে গেছেন। নদী পাড়ের বান্দিরা জানান, এবছর যে পরিমানে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে তাতে যে স্থানে তারা আছেন সেখানেও থাকতে ভয় পাচ্ছেন। রাতে ঘুমানোর পর মাঝে মধ্যে ভয়ে জেগে ওঠেন। মাঝেরপাড়ার বাসিন্দা নজরুল ইসলাম জানান, তাদের মসজিদটি ছিল কৃষ্ণনগর গ্রামের মাঝে। এখন চলে গেছে নদীর পাড়ে। মসজিদটিও ভেঙ্গে পড়ার আশংকায়। তিনি আরো জানান, উত্তরপাড়া শেষ হয়ে গেছে, এবার মাঝেরপাড়া নদী গর্ভে চলে যাবে। এখনই স্থায়ী বাঁধ না দিলে গোটা গ্রামই বিলিন হবে। এ ব্যাপারে সারুটিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহমুদুল হক জানান, কৃষ্ণনগর গ্রামের মানুষগুলো বাঁচাতে হলে এখনই স্থায়ী বাঁধ প্রয়োজন। এ ব্যাপারে তিনি প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করেছেন, কিন্তু লাভ হয়নি। আর উপজেলা সহকারী ভুমি কর্মকর্তা পার্থ প্রতিম শীল জানান, বিষয়টি পানি উন্নয়ন বোর্ড দেখেন। আর পানি উন্নয়ন বোর্ডের শৈলকুপা শাখা কর্মকর্তা বিকর্ণ দাস জানান, ঝিনাইদহ অংশে ২০ কিলোমিটার গড়াই নদী রয়েছে। গত বর্ষা মৌসুমে বড়–রিয়া এলাকায় কিছু কাজ করিয়েছেন তারা। এছাড়া নদী পাড়ের মানুষগুলো রক্ষায় বড়–রিয়া, কৃষ্ণনগর ও লাঙ্গলবাঁধ এলাকার ২৩৫ কোটি টাকার ৪ কিলোমিটার বাঁধ নির্মান কাজের একটা প্রাক্কলন অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। এটা অনুমোদন পেলে তারা দ্রতই কাজ শুরু করবেন বলে জানান।





google.com, pub-4074757625375942, DIRECT, f08c47fec0942fa0

খুলনা বিভাগ এর আরও খবর

প্রকাশককে হুমকি দেওয়া দুলালের নামে থানায় জিডি প্রকাশককে হুমকি দেওয়া দুলালের নামে থানায় জিডি
ঝিনাইদহ জেলা বিএনপি’র সম্মলন : বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় সভাপতি মজিদ, সম্পাদক পদে ৩ জনের লড়াই ঝিনাইদহ জেলা বিএনপি’র সম্মলন : বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় সভাপতি মজিদ, সম্পাদক পদে ৩ জনের লড়াই
ঝিনাইদহ হাসপাতালে নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা চিকিৎসকের সাক্ষর জাল করে ওষুধ উত্তোলন ঝিনাইদহ হাসপাতালে নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা চিকিৎসকের সাক্ষর জাল করে ওষুধ উত্তোলন
রক্তের হোলিখেলায় মেতে উঠেছে পাঞ্জের ও সবুজ হত্যা মামলার প্রধান আসামি দুলাল রক্তের হোলিখেলায় মেতে উঠেছে পাঞ্জের ও সবুজ হত্যা মামলার প্রধান আসামি দুলাল
মোরেলগঞ্জে ওয়ার্ল্ডভিশনের উদ্যোগে শিশুদের জন্মদিন পালন মোরেলগঞ্জে ওয়ার্ল্ডভিশনের উদ্যোগে শিশুদের জন্মদিন পালন
দেশ ও ইফাদ এগ্রোর দূষিত বর্জ্যে স্বাস্থ্য কেন্দ্র ৭ মাস বন্ধ, কৃষকরা হুমকির মুখে দেশ ও ইফাদ এগ্রোর দূষিত বর্জ্যে স্বাস্থ্য কেন্দ্র ৭ মাস বন্ধ, কৃষকরা হুমকির মুখে
ভূয়া চিকিৎসক মনিরের এক বছর কারাদন্ড ভূয়া চিকিৎসক মনিরের এক বছর কারাদন্ড
ঝিনাইদহ পৌরসভার স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর বাড়িতে গিয়ে হামলার নিন্দা করল আ’লীগ ঝিনাইদহ পৌরসভার স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর বাড়িতে গিয়ে হামলার নিন্দা করল আ’লীগ
ভাইকে মামলা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে বড় দুই ভাই এখন নিজেরাই জেলহাজতে ভাইকে মামলা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে বড় দুই ভাই এখন নিজেরাই জেলহাজতে
কুষ্টিয়ায় তছিরন নেছা হাফেজিয়া মাদ্রাসার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন কুষ্টিয়ায় তছিরন নেছা হাফেজিয়া মাদ্রাসার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)